মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে ৬ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। পদ্মার তীব্র স্রোতের কারণে এই নৌরুটে ব্যহত হচ্ছে ফেরি চলাচল। মঙ্গলবার সকাল থেকেই দীর্ঘ যানবাহনের সারি এবং যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছাতে বেশি সময় লাগায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।


   

  মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে ৬ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। পদ্মার তীব্র স্রোতের কারণে এই নৌরুটে ব্যহত হচ্ছে ফেরি চলাচল। মঙ্গলবার সকাল থেকেই দীর্ঘ যানবাহনের সারি এবং যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছাতে বেশি সময় লাগায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।


শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসি এর উপ-মহাব্যবস্থাপক শাহ নেওয়াজ জানান, পদ্মার তীব্র স্রোতের কারণে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে যেয়ে ফেরিগুলো আটকে যাচ্ছে। এছাড়া চ্যানেলের মুখে পদ্মা সেতু প্রকল্পের ব্যবহৃত ভাসমান পাম্পের কারণে ফেরিগুলো ঢুকার পথে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, এদিকে নতুন চ্যানেল দিয়ে আসা যাওয়া করতে আগে যেখানে দুই ঘণ্টা সময় লাগতো এখন লাগছে চার ঘণ্টা। এই রুটে ১৭টি ফেরি থাকলে ১২টি ফেরি স্রোতের সাথে পাল্লা দিয়ে চলাচল করছে। ইতিমধ্যে আমরা বিআইডব্লিউটিএ এর পদ্মা সেতু প্রকল্পের কর্মকর্তাদের পাম্পটি সরিয়ে নেওয়ার জন্য বলেছি। ঘাট এলাকায় ছোট বড় মিলিয়ে ৬ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাকের সংখ্যাই বেশি।

Post A Comment: