জনসেবা সহজীকরণ, বাল্যবিবাহ রোধে নির্যাতিত নারী ও শিশুদের জন্য আইনী সহায়তা প্রকল্প ‘অপরাজিতা যশোর’ এর জন্য শার্শা উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম ‘জনপ্রশাসন পদক ২০১৭’-এর জন্য চূড়ান্তভাবে মনোনীত হয়েছেন।
জনপ্রশাসন পদক পাচ্ছেন শার্শার ইউএনও

    জনসেবা সহজীকরণ, বাল্যবিবাহ রোধে নির্যাতিত নারী ও শিশুদের জন্য আইনী সহায়তা প্রকল্প ‘অপরাজিতা যশোর’ এর জন্য শার্শা উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম ‘জনপ্রশাসন পদক ২০১৭’-এর জন্য চূড়ান্তভাবে মনোনীত হয়েছেন।


গত ১৬ জুলাই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব তনিমা তাসনিম স্বাক্ষরিত ০৫.০০.০০০০.১৯৬.২৩.০১৪.১৬.১৯২ নাম্বার স্মারক পত্রে প্রশাসন পদক ২০১৭ এর জন্য তাকে নির্বাচনের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

এ ছাড়াও যশোর জেলার নির্যাতিত নারী ও শিশুদের জন্য আইনী সহায়তা প্রকল্প ‘অপরাজিতা যশোর’ এর জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও যশোরের সাবেক জেলা প্রশাসক ড. মো. হুমায়ুন কবীর দলনেতা হিসাবে জনপ্রশাসন পদকের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

এই দলের অপর সদস্যরা হলেন- স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব ও যশোরের সাবেক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সখিনা খাতুন, এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী প্রোগ্রামার মোতাহার হোসেন।

শার্শা উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জেলা পর্যায়ে আগামী ২৩ জুলাই জাতীয়ভাবে ‘পাবলিক সার্ভিস ডে’ উদযাপিত হবে। যশোর কালেক্টরেট চত্বরে জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রদত্ত সম্মাননাপত্র ও ক্রেস্ট জনপ্রশাসন পদক ২০১৭ জন্য নির্বাচিতদের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হবে।

Post A Comment: