ইসরায়েলি পুলিশ জানিয়েছে, তারা আল আকসা মসজিদ থেকে সকল নিরাপত্তা সরঞ্জাম উঠিয়ে নিচ্ছে। ১৪ জুলাই একটি হামলার পরিপ্রেক্ষিতে জেরুসালেমে উত্তেজনা দেখা দিলে আল আকসা মসজিদ কয়েকদিন বন্ধ করে রাখা হয়। আরোপ করে বেশ কিছু নিয়মকানুন। প্রথমে ৫০ বছরের কম বয়সী পুরুষের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়, যেটা পরে আবার উঠিয়ে নেওয়া হয়। পরে আল আকসার গেইটে মেটাল ডিটেক্টর বসানো হয়।
আল আকসা থেকে নিরাপত্তা সরঞ্জাম সরাল ইসরায়েল
   

 ইসরায়েলি পুলিশ জানিয়েছে, তারা আল আকসা মসজিদ থেকে সকল নিরাপত্তা সরঞ্জাম উঠিয়ে নিচ্ছে। ১৪ জুলাই একটি হামলার পরিপ্রেক্ষিতে জেরুসালেমে উত্তেজনা দেখা দিলে আল আকসা মসজিদ কয়েকদিন বন্ধ করে রাখা হয়। আরোপ করে বেশ কিছু নিয়মকানুন। প্রথমে ৫০ বছরের কম বয়সী পুরুষের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়, যেটা পরে আবার উঠিয়ে নেওয়া হয়। পরে আল আকসার গেইটে মেটাল ডিটেক্টর বসানো হয়।


এর ফলে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে নতুন করে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

এমন পরিস্থিতিতে ইসরায়েল তাদের কঠোর অবস্থান থেকে সরে আসল। বার্তা সংস্থা এএফপিকে ইসরায়েলের পুলিশের মুখপাত্র লুবা সামরি বলেন, ‘১৪ জুলাই হারাম আল শরীফে সন্ত্রাসী হামলার আগে যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল সেটাতে ফেরত যাওয়া হয়েছে।’

নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের পরিপ্রেক্ষিতে আল আকসা বয়কটের সিদ্ধান্ত পাল্টাবেন কিনা সেটা নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে মুসলিম প্রতিনিধিরা বৈঠকে বসেছেন। বয়কট উঠিয়ে নিলে আবার আল আকসা মসজিদে নামাজের জন্য আসবেন মুসলিমরা।

গত দুই সপ্তাহে ইসরায়েল ও মুসলিমদের মধ্যে তীব্র বিরোধ দেখা দেয়। মঙ্গলবার মেটাল ডিটেক্টর সরিয়ে নেওয়া হলেও উত্তেজনা প্রশমন হচ্ছিল না। এমন অবস্থা চলতে থাকলে আগামী শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় কঠিন পরিস্থিতির আশঙ্কা করা হচ্ছিল।
 


এই পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিভিন্ন নিরাপত্তা ব্যবস্থা উঠিয়ে নিতে থাকে ইসরায়েলের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

পবিত্র এই মসজিদ থেকে ইসরায়েলি নিরাপত্তা ব্যবস্থা তুলে নেওয়াতে উল্লাস প্রকাশ করে মিছিল করেছে ফিলিস্তিনিরা।

Post A Comment: