অবৈধভাবে চাল মজুদকারী ১৬ হাজার মিল মালিকদের চিহ্নিত করে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।
‘চাল মজুদকারী ১৬ হাজার মিলার কালো তালিকাভুক্ত’

    অবৈধভাবে চাল মজুদকারী ১৬ হাজার মিল মালিকদের চিহ্নিত করে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।


বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে চাল আমদানি পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘বাজারে চালের মূল্য বৃদ্ধির একমাত্রা কারণ হচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ীরা মজুদ করেছিল। হাওর অঞ্চলে বন্যা হওয়ার পর থেকেই তারা মজুদ শুরু করেছিল। আমরা যে (বোরোর) ক্রয় মূল্য ৩৪ টাকা দিয়েছিলাম, বাজারের দামের সঙ্গে ছিল বিরাট ফারাক। ফলশ্রুতিতে আমরা (বোরো) সংগ্রহ করতে পারিনি।’

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যে সব মিল মালিক অবৈধভাবে চাল মজুদ করেছে, তিন বছরের জন্য আমরা তাদেরকে কালো তালিকাভুক্ত করেছি। তাদের কাছ থেকে আমরা চাল ক্রয় করব না।’

এ ধরণের কালো তালিকাভুক্ত মিল মালিকদের সংখ্যা ১৬ হাজার বলেও জানান খাদ্যমন্ত্রী।

Post A Comment: