চাঁদপুর পৌরসভার সড়কগুলো ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। একটু বৃষ্টি হলেই খানাখন্দে ভরে যায় শহরের অন্যতম প্রধান সড়কগুলো। সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা।
চাঁদপুরে সড়কের বেহাল দশা, দুর্ভোগ চরমে

    চাঁদপুর পৌরসভার সড়কগুলো ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। একটু বৃষ্টি হলেই খানাখন্দে ভরে যায় শহরের অন্যতম প্রধান সড়কগুলো। সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা।


এমনকি কোনো কোনো সড়কে যানবাহন চালানো অসম্ভব হয়ে পড়েছে বলে দাবি চালকদের। যন্ত্রপাতি নষ্ট এবং চাকা পাংচারের আতঙ্কে থাকেন তারা।

স্থানীয় কাউন্সিলর ভোগান্তির কথা স্বীকার করলেও মেয়র বলছেন শিগগিরই এ সমস্যার কোনো সমাধান করা হবে।

৯.১৫ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের চাঁদপুর পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডে জনসংখ্যা প্রায় সোয়া লাখ। ১৮৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এ পৌরসভাটি দেশের প্রথমসারির একটি হলেও সড়কগুলোর অবস্থা একেবারে নাজুক

এমনও সড়ক আছে যেখান দিয়ে যানবাহনতো দূরের কথা মানুষও চলাচল করতে পারে না। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য, শহরের ট্রাক রোড, বঙ্গবন্ধু সড়ক, মাদ্রাসা রোড, ঢালিরঘাট সড়কসহ শহরের বিভিন্ন অলিগলির সড়ক।

স্থানীয় বাসিন্দা আবু সুফিয়ান, রুস্তম মিজি, আশ্রাফ শেখসহ আরো অনেকেই জানান, এক ঘণ্টার বৃষ্টির পানিতে দুর্ভোগ পোহাতে হয় কমপক্ষে ১০-১৫ দিন। পৌর কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি নিয়ে গেলে আশ্বাস নিয়েই ফিরে আসতে হয়। অথচ বঙ্গবন্ধু সড়ক ও ট্রাক রোড শহরের গুরুত্বপূর্ণ দুটি সড়ক। এ দুটি প্রধান সড়ক যান চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় শহরে তৈরি হচ্ছে যানযট।

দ্রুত এ দুটি সড়কসহ অন্যান্য সড়কগুলো সংস্কারের দাবি জানান তারা।

চাঁদপুর পৌরসভার ১৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান দর্জি বলেন, আমি নিজেও রাস্তায় দিয়ে চলাফেরা করতে গিয়ে ভোগান্তিতে পড়ি। আগামী অক্টোবর মাসে রাস্তা মেরামতের কাজ করা হবে।

চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ জানান, একটি প্রকল্পের আওতায় শহরের সবগুলো সড়কের কাজ করা হবে।

Post A Comment: