তাহসান মিথিলার ডিভোর্স ঠেকাতে খোলা হয়েছে ফেসবুক ইভেন্ট। ইভেন্টের মেয়াদকাল সকাল আটটা থেকে রাত ১১টা। তারা সমাবেত হতে চাইছেন শাহবাগে। এ যাবত ২৭ শ এর মতো মানুষকে দেখা গিয়েছে ইভেন্টটির ‘গোয়িং’ অপশনে। এবং ১৮ হাজার মানুষ রয়েছেন ইন্টারেস্টেড। কর্তৃপক্ষ ইভেন্টের নাম দিয়েছেন ‘তাহসান-মিথিলার ডিভোর্স মানি না, মানব না।’ তারা তাদের ইভেন্টের ডিটেইলস বর্ণনা করেছেন এভাবে: ‘তাহসান-মিথিলার ডিভোর্স একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। এর পেছনে যাদের হাত রয়েছে তাদের পর্দা ফাঁস করতে হবে। এবং সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি কার্যকর করতে হবে’।


তাহসান মিথিলার ডিভোর্স ঠেকাতে খোলা হয়েছে ফেসবুক ইভেন্ট। ইভেন্টের মেয়াদকাল সকাল আটটা থেকে রাত ১১টা। তারা সমাবেত হতে চাইছেন শাহবাগে। এ যাবত ২৭ শ এর মতো মানুষকে দেখা গিয়েছে ইভেন্টটির ‘গোয়িং’ অপশনে। এবং ১৮ হাজার মানুষ রয়েছেন ইন্টারেস্টেড। কর্তৃপক্ষ ইভেন্টের নাম দিয়েছেন ‘তাহসান-মিথিলার ডিভোর্স মানি না, মানব না।’ তারা তাদের ইভেন্টের ডিটেইলস বর্ণনা করেছেন এভাবে: ‘তাহসান-মিথিলার ডিভোর্স একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। এর পেছনে যাদের হাত রয়েছে তাদের পর্দা ফাঁস করতে হবে। এবং সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি কার্যকর করতে হবে’।


তবে এখানে উল্লেখ্য যে, এই ইভেন্টটির হোস্ট হচ্ছেন "স্যার আনিসুল হক পুটুন দা"। এবং মজা করার জন্যেই এমন একটি ইভেন্ট পেজ খোলা হয়। তবে মানুষ পুরো বিষয়টি বুঝতে না পেরে, সেখানে যাবে বলে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে, সেটাই হলো দেখার মতো ব্যাপার।

একই নামে ইভেন্ট তৈরি করা হয়েছে কিশোরগঞ্জে। অবশ্য তারা এখনও সেভাবে সাড়া ফেলতে পারেননি।


কিশোরগঞ্জে নির্মিত ইভেন্ট পেজের স্ক্রিন শট।

Post A Comment: