রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে মাটিচাপা পড়াদের জীবন বাঁচাতে গিয়ে নিজেই লাশ হয়ে ফিরলেন সৈনিক মো. আজিজুর রহমান (৩১)। ঘটনার তিন দিন পর বৃহস্পতিবার প্রায় ৫০ ফুট গভীর খাদ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে পাহাড় ধসের ঘটনায় দুই কর্মকর্তাসহ পাঁচ সেনা সদস্য মারা গেলেন।
সৈনিক আজিজের বাড়িতে মাতম

    রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে মাটিচাপা পড়াদের জীবন বাঁচাতে গিয়ে নিজেই লাশ হয়ে ফিরলেন সৈনিক মো. আজিজুর রহমান (৩১)। ঘটনার তিন দিন পর বৃহস্পতিবার প্রায় ৫০ ফুট গভীর খাদ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে পাহাড় ধসের ঘটনায় দুই কর্মকর্তাসহ পাঁচ সেনা সদস্য মারা গেলেন।


নিখোঁজের পর থেকেই আজিজুর রহমানের পরিবারে ছিল চাপা আর্তনাদ। বৃহস্পতিবার লাশ উদ্ধারের খবর গ্রামের বাড়ি মাদারীপুর সদর উপজেলার শ্রীনাদী বাজিতপুর গ্রামে পৌঁছলে পড়ে যায় কান্নার রোল। মাতম করতে থাকেন স্বজনেরা।

এ মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি আজিজের মা-বাবা, বোনসহ পরিবারে সদস্যরা। তারা সবাই বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন। কেউ কোনো কথা বলতে গেলেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছেন।

ওই গ্রামের মো. খলিল বেপারীর বড় ছেলে নিহত সেনা সদস্য আজিজুর রহমান। ২০০২ সালে এসএসসি পাস করার পর ২০০৪ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন তিনি।

এরপর চার বছর আগে একই জেলার রাজৈর উপজেলার দুর্গাবর্দী গ্রামের নিপাকে বিয়ে করেন আজিজ। তাদের তাহাসিন নামে দুই বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

স্বামীর অকাল মৃত্যু শোকে নিপা পাথর হয়ে পড়েছেন। কারো সঙ্গে তিনি কথা বলছেন না। সারাক্ষণ বিলাপ করছেন।

এলাকার মানুষ এই পরিবারের সদস্যদের কাছে এসে নানাভাবে সান্ত্বনা দেওয়ার চেষ্টা করছেন। কিন্তু কোনো কথায় যে, তাদের ভোলাতে পারছে না আজিজের চলে যাওয়াকে।

Post A Comment: