গাজীপুরের টঙ্গীর খাঁ পাড়া এলাকায় তমাল নামে এক দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। মরদেহ শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
 


গাজীপুরের টঙ্গীর খাঁ পাড়া এলাকায় তমাল নামে এক দোকান কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। মরদেহ শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।


নিহত তমাল শেরপুরের তিরশা গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে। তিনি খাঁ পাড়া এলাকায় বাদশা মিয়ার বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করতেন।

টঙ্গী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ তালুকদার জানান, তমাল টঙ্গীর খাঁ পাড়া এলাকায় স্থানীয় আহসানউল্লাহর টাইলসের দোকানের কর্মচারী ছিলেন। গতকাল রাত সাড়ে ১১টার দিকে একটি নির্মাণাধীন ভবনে তমালের পড়ে থাকার খবর তার পরিবারকে জানান দোকান মালিক আহসান উল্লাহ। পরে তমালের পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তমালকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও জানান, কয়েকদিন আগে একই এলাকার রাসেল নামে একই বয়সী এক ছেলের সঙ্গে টাকা পয়সা লেনদেন নিয়ে তমালের ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে গতকাল রাতে বাসায় ফেরার পথে রাসেল তার গতিরোধ করে এবং পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

এ ঘটনায় নিহতের পরিবার দোকান মালিক আহসানউল্লাহ, রাসেলসহ আটজনের নাম উল্লেখ করে টঙ্গী থানায় একটি অভিযোগ করেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দোকান মালিক আহসানউল্লাহসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

Post A Comment: