ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু এবং ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের ঠাকুরগাঁও এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
 


ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু এবং ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের ঠাকুরগাঁও এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চাড়োল ইউনিয়নের লাহিড়ী শিলপাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার শিলপাটি গ্রামের জম্মু ও মহির উদ্দীনের মধ্যে বসতভিটার জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বিরোধ নিয়ে শনিবার বিকালে উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এতে  প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে বরকত আলী ওরফে ফিটু নামে এক ব্যক্তি মারাত্মক আহত হয়। তাকে ওদিনই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার বিকালে বরকত আলী ওরফে ফিটুর মৃত্যু হয়।

উভয় পক্ষের আহতরা তৈয়বুর, মহি, নাজেরা, জাকির, আনোয়ার, তাজমুল হকসহ সকলে বর্তমানে ঠাকুরগাঁও এবং রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ বিষয়ে মৃত ফিটুর ছেলে মাসুদ রানা বাদী হয়ে ১৬ জনকে আসামি করে বালিয়াডাঙ্গী থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজার রহমান জানান, জমি নিয়ে বিরোধের ঘটনায় হত্যা মামলা নেয়া হয়েছে। আসামিরা পলাতক থাকায় গ্রেপ্তার করা সম্ভব হচ্ছে না।

Post A Comment: