পিরোজপুরে কলেজছাত্রী লামিয়া নূরকে হত্যার অভিযোগে পুলিশ সদস্য স্বামীকে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে কলেজের ছাত্র-ছাত্রী ও এলাকাবাসী। বুধবার সকালে শহরের টাউন ক্লাব সড়কে এ কর্মসূচি পালিত হয়।
 Schoolgirls-want-police-judge-to-kill-collegegirl


পিরোজপুরে কলেজছাত্রী লামিয়া নূরকে হত্যার অভিযোগে পুলিশ সদস্য স্বামীকে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে কলেজের ছাত্র-ছাত্রী ও এলাকাবাসী। বুধবার সকালে শহরের টাউন ক্লাব সড়কে এ কর্মসূচি পালিত হয়।


এ সময় বক্তব্য রাখেন- পিরোজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিউল হক মিঠু, পৌর কাউন্সিলর আব্দুস ছালাম বাতেন, পৌর কাউন্সিলর সাদ্উল্লাহ লিটন, উন্নয়ন কর্মী মাইনুল আহসান মুন্না, জেলা মহিলা পরিষদের আন্দোলন সম্পাদক শিরিনা আফরোজ, সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের ভিপি এস এম বায়েজিদ হোসেন, সহপাঠী আবুল কালাম, লামিয়া নূরের চাচা মো. আলম সেখ, স্থানীয় এস এম মুর্সিদ, সৈয়দ আহসান।

বক্তারা এ সময় কলেজ ছাত্রী লামিয়া নূরের হত্যাকারী স্বামী পুলিশ সদস্য হানজালা হাসানের অভিলম্বে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবি জানান।

গত শনিবার দুপুরে ঝিনাইদহে স্বামীর বাড়িতে সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের স্নাতক ২য় বর্ষের ছাত্রী লামিয়া নূরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপরে থেকেই তার পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করে আসছেন, লামিয়াকে হত্যার পরে তার লাশ ঝুলিয়ে রেখে ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বলে প্রচার করে তার স্বামী পুলিশ সদস্য হানজালা হাসান।

Post A Comment: