দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বরিশালে সকল রুটে সকল লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ। সোমবার রাতে ঢাকার উদ্দেশ্যে বরিশাল থেকে কোন লঞ্চ ছেড়ে যায়নি।
বরিশালে লঞ্চ চলাচল বন্ধ 


দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বরিশালে সকল রুটে সকল লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ। সোমবার রাতে ঢাকার উদ্দেশ্যে বরিশাল থেকে কোন লঞ্চ ছেড়ে যায়নি।


বরিশাল নদী বন্দরের জন্য ৪ নম্বর মহাবিপদ সংকেত এবং পায়রা নদী বন্দরে ৮ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলায় জেলা প্রশাসন কন্ট্রোল রুম খুলেছে।

এছাড়া চর এলাকার লোকজনদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ নৌ পরিবহন অভ্যন্তরীণ কর্তৃপক্ষ বরিশালের নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের উপ-পরিচালক আজম হুদা সরকার মিঠু বলেন, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বরিশাল থেকে সকল রুটের লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে এবং মাঝ নদীতে থাকা লঞ্চগুলোকে নিরাপদ স্থানে থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আবহাওয়ার পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত এটা বলবৎ থাকবে।

বরিশাল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে দ্বিতল লঞ্চ চলাচলও বন্ধ করে দিয়েছেন। এতে বরিশাল থেকে আজ ঢাকার উদ্দেশ্যে ৫টি লঞ্চ নৌ বন্দর ছেড়ে যায়নি। যাত্রীদের ফিরে যেতে হয়েছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন প্রায় ৩ হাজার যাত্রী।

বরিশাল আবহাওয়া অফিসের উচ্চ পর্যবেক্ষক আব্দুল কুদ্দুস জানান,  বরিশালের নদী বন্দরে ৪নং বিপদ সংকেত দেয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’র কারণে ৪ থেকে ৫ ফুট জলোচ্ছাস হতে পারে। এছাড়া বরিশালে ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি বলবৎ থাকবে ঘূর্ণিঝড় কেটে না যাওয়া পর্যন্ত।

এদিকে জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান বলেন,  প্রশাসনের পক্ষ থেকে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।  মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে ১০২টি। জেলায় ২৩৬টি আশ্রয়কেন্দ্রের মধ্যে চর এলাকার লোকজনদের নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য মাইকিং করা হচ্ছে। ২ হাজার প্যাকেট খুচরা খাবার মওজুদ রাখা হয়েছে দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য।

Post A Comment: