জুনে অনুষ্ঠিতব্য চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ও আয়াল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং সাসেক্সে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের জন্য ১৮ সদস্যের দলে অবশ্য জায়গা পেয়েছেন জাতীয় দলের অনিয়মিত মুখ নাসির হোসেন। ডাক পেয়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দলেও। তবে ১৫ সদস্যের এই দলে যেন থেকেও নেই ডানহাতি এই অলরাউন্ডার।


  জুনে অনুষ্ঠিতব্য চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ও আয়াল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং সাসেক্সে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের জন্য ১৮ সদস্যের দলে অবশ্য জায়গা পেয়েছেন জাতীয় দলের অনিয়মিত মুখ নাসির হোসেন। ডাক পেয়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দলেও। তবে ১৫ সদস্যের এই দলে যেন থেকেও নেই ডানহাতি এই অলরাউন্ডার।

বৃহস্পতিবার মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠিনভাবে এই দল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ১৫ সদস্যবিশিষ্ট দলে নাসিদের জায়গা হয়েছে স্ট্যান্ড-বাই তালিকায়। সে হিসেবে এবারও জাতীয় দল থেকে অনেকটাই বাইরে থাকছেন ২৫ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার।

দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলের বাইরে থাকা নাসির ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করে যাচ্ছেন নিয়মিত। কিন্তু ব্যাট হাতে ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের পরও নির্বাচক, টিম ম্যানেজমেন্টের নজর কাড়তে ব্যর্থ হচ্ছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। শেষ পর্যন্ত ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরম্যান্স দিয়ে নজর কাড়লেও জায়গা হয়নি মূল দলে। নুরুল হাসান সোহান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও শুভাশিস রায়ের সঙ্গে সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে স্ট্যান্ড-বাই তালিকায়।

তবে আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ত্রিদেশীয় সিরিজ ও ইংল্যান্ডের সাসেক্সে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের জন্য নাসিরকে রাখা হয়েছে ১৮ সদস্যের মূল দলে। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে নাসির সর্বশেষ খেলেছেন গেল বছরের অক্টোবরে। চট্টগ্রামের জহুর আহম্মেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের সর্বশেষ ওয়ানডে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। ওই ম্যাচে ব্যাট হাতে চার রান করলেও বল হাতে তুলে নেন এক উইকেট।

এর আগে একাধিকবার স্কোয়াডেও থাকলেও নাসিরের জায়গা হয়নি দলের মূল একাদশে। ফলে স্কোয়াডে থেকেও মাঠে নামা হয়নি তার। তবে ইংল্যান্ড সিরিজের পর নিউজিল্যান্ড বা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে স্কোয়াডেও জায়গা হয়নি ডানহাতি এই অলরাউন্ডারের।

জাতীয় দলে নাসিরকে বিবেচনা করা না হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে একের পর এক সেঞ্চুরি উপহার দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সদ্য সমাপ্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) পেয়েছেন ডাবল সেঞ্চুরির দেখা। এরপর সেঞ্চুরি করেছেন বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত ইমার্জিং এশিয়া কাপে।

ব্যাট হাতে আলো ছড়াচ্ছেন চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগেও (ডিপিএল)। গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের হয়ে খেলা নাসির সেঞ্চুরি পেয়েছেন মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে। টুর্নামেন্টে নিজেরদের প্রথম ম্যাচে ১০৬ রানের অপরাজিত এক ইনিংসে খেলেছেন তিনি। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে দলও পেয়েছে সাত উইকেটের বড় জয়।

প্রিমিয়ার লিগের প্রথম রাউন্ডের সেঞ্চুরিই হয়তো নাসিরকে স্কোয়াডে জায়গা এনে দেয়ার ক্ষেত্রে মূল ভুমিকা পালন করছে। এদিকে দ্বিতীয় রাউন্ডেও ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ৪১ রানে অপরাজিত ছিলেন নাসির। গাজী গ্রুপও জয় পেয়েছে হেসে খেলে।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, সানজামুল ইসলাম, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন ও শফিউল ইসলাম।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির স্ট্যান্ড বাই তালিকা: নুরুল হাসান সোহান, নাসির হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, শুভাশিষ রায়।

Post A Comment: