বিএনপিকে ছাড়া এ দেশে কোনো নির্বাচন হবে না বলে সরকারকে হুঁশিয়ার করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ২০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তবে তিনি এ কথা বলেন।



বিএনপিকে ছাড়া এ দেশে কোনো নির্বাচন হবে না বলে সরকারকে হুঁশিয়ার করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

২০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তবে তিনি এ কথা বলেন।

সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের প্রতি পদে পদে আটকে রাখবেন, বাধা দেবেন, আবার বলবেন নির্বাচনে যান। এসব হবে না। আমরা পরিষ্কার করে বলেছি, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। অন্যথায় কোনো নির্বাচন হবে না।

‘বিএনপিকে নিবন্ধন বাতিলের ভয় দেখিয়ে লাভ নেই’, এমন মন্তব্য করে বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, বিএনপি দেশের সর্ববৃহৎ দল। আমরা নিবন্ধন বাতিলের ভয় করি না।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পেছনে জনগণ নেই। তিনি জনগণের প্রতিনিধি হলে তিস্তা চুক্তি সই না হওয়া পর্যন্ত অন্য চুক্তি সই করতেন না। সেই শক্তি তার নেই। প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বিদেশে যান। দেশের রাজনীতিকে প্রতিবন্ধী করে বিদেশে সেমিনারে যান।

সরকার বেআইনিভাবে ক্ষমতায় টিকে আছে উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, তারা নিজেরা নিজেদের নির্বাচিত ঘোষণা করে ক্ষমতায় টিকে আছে। গত ৯ বছর ধরে বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের ওপর স্ট্রিম রোলার চালাচ্ছে। পৃথিবীর ইতিহাসে এটা বিরল। সভ্য দেশের ইতিহাসে এমনটা নেই।

Post A Comment: