গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস বোকামি করেছেন এমন মন্তব্য করে চিত্রনায়ক শাকিব খান বলেছেন, ‘তার এ বোকামির কারণেই আর কেউ কখনও শাকিব-অপু জুটি দেখতে পাবেন না’।

  গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস বোকামি করেছেন এমন মন্তব্য করে চিত্রনায়ক শাকিব খান বলেছেন, ‘তার এ বোকামির কারণেই আর কেউ কখনও শাকিব-অপু জুটি দেখতে পাবেন না’।

১১ এপ্রিল মঙ্গলবার একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। রাত দশটায় সরাসরি এই অনুষ্ঠানে দর্শকদের সামনে আসেন শাকিব খান।

গত ১০ এপ্রিল সোমবার অপু বিশ্বাস শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্ক, বিয়ে ও সন্তানের কথা প্রকাশ করেন। এরপর বিভিন্ন গণমাধ্যমকে শাকিব বলেন, অপুর সঙ্গে তার বিয়ে হয়নি। একদিন পরেই টেলিভিশনে এসে শাকিব বলেন, অপুর সঙ্গে বিয়ে হয়েছে, সে তার স্ত্রী।

এ সময় তিনি বলেন, ‘তার জনপ্রিয়তা ও সফলতায় অনেক শত্রু তৈরি হয়েছে। তারাই কাছের লোককে দিয়ে এই কাজটা করিয়েছে। অপুকে ট্র্যাপে ফেলে মিডিয়ার সামনে হুট করে এনেছে। যেটা আমি চিন্তাও করতে পারিনি।’

শাকিব খান বলেন, ‘তার (অপু) এই বোকামির কারণেই বা ট্র্যাপে অপুর এই বোকামির কারণেই আর কেউ কখনও শাকিব-অপু জুটি দেখতে পাবেন না’।

এ সময় উপস্থাপক বলেন, শাকিব-অপু জুটির নতুন ছবি আমি অবশ্যই দেখতে যাব।

শাকিব তখন বলেন, ‘আপনি বা আমার কাছের মানুষ যারা আছেন, তারা হয়তো যাবেন। কিন্তু আমরা কখনই দেখিনি দর্শকরা হাজব্যান্ড-ওয়াইফকে অনস্ক্রিন রোমান্স দেখতে পছন্দ করে। সেক্ষেত্রে কাস্টিংও হয় না কখনও। ঠিক আছে, একটা সময় পরে গিয়ে হয়তো ক্যারেক্টার আর্স্টিস্ট হিসেবে কাজ করতে হয়।’

সোমবার একটি ছবিকে কেন্দ্র করেই অপুর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি শুরু হয়েছে বলে দাবি করেন শাকিব।

অপু বিশ্বাসকে ক্ষমা করে দিয়েছেন জানিয়ে শাকিব খান বলেন, ‘আজ সকালে সব সিচুয়েশন বিবেচনা করে ও সন্তানের কথা ভেবে মন থেকে অপুকে আমি মাফ করে দিয়েছি’।

গতকাল ১০ এপ্রিল অপু বিশ্বাস জানান, ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিব খানের বাসায় তাদের বিয়ে হয়। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ছেলে আব্রাহামের জন্ম হয়। তবে শাকিবের কারণে সম্পর্কের তথ্য গোপন রেখেছিলেন বলে দাবি করেন অপু।

অনুষ্ঠানটির কিছু অংশের ভিডিও

Post A Comment: