আফগানিস্তানে সামরিক পোশাক পরা এক আত্মঘাতী তালেবানের হামলায় নিহতের সংখ্যা শতাধিক। বিবিসি-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এই হামলায় কমপক্ষে একশো সেনা নিহত হয়েছেন। যদিও ঘটনাস্থল থেকে দেশটির এক কর্মকর্তা শনিবার জানিয়েছেন, অন্তত ১৪০ জন সৈন্য নিহত ও বহু আহত হয়েছে।
আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় শতাধিক সেনা নিহত 


আফগানিস্তানে সামরিক পোশাক পরা এক আত্মঘাতী তালেবানের হামলায় নিহতের সংখ্যা শতাধিক। বিবিসি-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এই হামলায় কমপক্ষে একশো সেনা নিহত হয়েছেন। যদিও ঘটনাস্থল থেকে দেশটির এক কর্মকর্তা শনিবার জানিয়েছেন, অন্তত ১৪০ জন সৈন্য নিহত ও বহু আহত হয়েছে।


আফগানিস্তানের কোনো সেনা স্থাপনায় চালানো সবচেয়ে প্রাণঘাতী হামলা এটি।  নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন অন্যান্য কর্মকর্তারা। সরকারিভাবে এখনও হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করা হয়নি বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এসব কথা জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তারা।

সেনাবাহিনীর পোশাক পড়ে এক তালেবান সদস্য একটি সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালায় বলে জানিয়েছে আফগান কর্তৃপক্ষ। আফগানিস্তানের মাজার ই শরিফ শহরের সেনা ঘাঁটিতে এ ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) গ্রুপের শীর্ষ নেতাকে হত্যার কথা জানিয়েছে পেন্টাগন।

আফগান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জানিয়েছেন, সৈনিকরা যখন শুক্রবারের নামাজের জন্য সেনা ঘাঁটির বাইরে বের হচ্ছিল, তখন সেনা সদস্যদের মতোই পোশাক পড়ে সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। তাদেরই আরেকটি দল হামলা করে ক্যান্টিনে থাকা সেনাদের উপর।

তালেবান জানিয়েছে, তাদের হামলাকারীরা আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে প্রথমেই ঘাঁটির প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ভেঙ্গে দিয়েছে।

আফগানিস্তানের মাজার ই শরিফের বাইরে ওই সেনা ঘাঁটিতে দিনের শেষভাগেও হামলাকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ চলে সেনাবাহিনীর। সেনা কর্তৃপক্ষ জানায়, হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। সহিংসতায় কমপক্ষে দশজন তালেবান জঙ্গি নিহত হয়েছে।

এদিকে পেন্টাগন জানিয়েছে, ইসলামিক স্টেট গ্রুপের নেতা আবু বকর আল বাগদাদির একজন ঘনিষ্ঠ সহযোগী তাদের কমান্ডো অভিযানে নিহত হয়েছে। আবদুল রহমান আল উজবেকি সিরিয়ায় নিহত হন, যিনি নববর্ষের রাতে ইস্তানবুলের একটি নৈশ ক্লাবে হামলার পরিকল্পনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

Post A Comment: