ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়িটিতে অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু রাসায়নিক ভর্তি ড্রাম, অস্ত্র, গুলি ও জেহাদি বই উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আজ শনিবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে এ অভিযান শুরু হয়। এ অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে ‘সাউথ প’ বা ‘দক্ষিণের থাবা’।


ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়িটিতে অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু রাসায়নিক ভর্তি ড্রাম, অস্ত্র, গুলি ও জেহাদি বই উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আজ শনিবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে এ অভিযান শুরু হয়। এ অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে ‘সাউথ প’ বা ‘দক্ষিণের থাবা’।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশের খুলনার রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক ডিআইজি দিদার আহমেদ বলেন, ওই বাড়ি থেকে রাসায়নিক ভর্তি ১৪টি ড্রাম, একটি বিদেশি পিস্তল, সাতটি গুলি ও বেশ কিছু জেহাদি বই উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযান এখনো চলছে। বোমা বিশেষজ্ঞ দল সেখানে কাজ করছে।

এর আগে আজ সকাল ৬টার দিকে ওই এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য সংখ্যা বাড়ানো হয়। বাড়িটির খুব কাছাকাছি অবস্থান নিয়েছে তারা। এ ছাড়া সকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের বেশ কয়েকটি গাড়ি ঘটনাস্থলে এসেছে। 

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঠনঠনিপাড়ার ওই বাড়িটি ঘিরে ফেলেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এরই মধ্যে পুলিশ, র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নসহ (র‍্যাব) আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সেখানে পৌঁছান।

গতকাল রাত ১০টা থেকেই পুলিশের খুলনার রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহমেদ ঝিনাইদহে অবস্থান করছেন। তিনি অভিযানের সার্বিক দিক তত্ত্বাবধান করছেন বলেও পুলিশ কর্মকর্তা আজবাহার আলী শেখ জানান।
x

Post A Comment: