বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু এই পর্বত মাউন্ট এভারেস্টের চূড়ায় আরোহণ না করেই অনেক পর্বতারোহী মিথ্যাচার করেন বলে অনেক দিন ধরেই অভিযোগ রয়েছে। সেটি ঠেকানোর ব্যবস্থা নিতে এভারেস্টে আরোহণকারীদের জিপিএস ট্র্যাকিং ডিভাইস দেবেন নেপালের সরকার। ২১ মার্চ মঙ্গলবার বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছর ভারত থেকে যাওয়া দুই পর্বতারোহী মাউন্ট এভারেস্টের চূড়ায় ওঠার দাবি করেছিলেন। তবে, পরে তাদের সেই চূড়ায় ওঠার ছবি ভুয়া ছিল বলে অভিযোগ ওঠে। এর পর তাদের দশ বছরের জন্য নেপালে পর্বতারোহণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে নেপালের কর্তৃপক্ষ।


বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু এই পর্বত মাউন্ট এভারেস্টের চূড়ায় আরোহণ না করেই অনেক পর্বতারোহী মিথ্যাচার করেন বলে অনেক দিন ধরেই অভিযোগ রয়েছে।

সেটি ঠেকানোর ব্যবস্থা নিতে এভারেস্টে আরোহণকারীদের জিপিএস ট্র্যাকিং ডিভাইস দেবেন নেপালের সরকার। ২১ মার্চ মঙ্গলবার বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছর ভারত থেকে যাওয়া দুই পর্বতারোহী মাউন্ট এভারেস্টের চূড়ায় ওঠার দাবি করেছিলেন। তবে, পরে তাদের সেই চূড়ায় ওঠার ছবি ভুয়া ছিল বলে অভিযোগ ওঠে। এর পর তাদের দশ বছরের জন্য নেপালে পর্বতারোহণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে নেপালের কর্তৃপক্ষ।

এ রকম মিথ্যাচার রুখতে পর্বতারোহীদের জন্য জিপিএস ট্র্যাকিং ডিভাইস দেবে নেপাল সরকার। এভারেস্টের চূড়ায় না উঠেই কেউ দাবি জানালে যন্ত্রটি দিয়ে ধরে ফেলা যাবে। একই সঙ্গে কোনো পর্বতারোহী বিপদে পড়লে তাকে খুঁজে পাওয়া সহজ হবে।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন বিষয়টি যদি এ বছর সফল হয় তাহলে আগামী বছর থেকেই পর্বতারোহীদের জন্য এ ধরনের যন্ত্র বহন বাধ্যতামূলক করা হবে। হিমালয়ের বিভিন্ন পর্বতের চূড়ায় ওঠার মূল মৌসুম হলো এপ্রিল ও মে মাস।

শত শত পর্বতারোহী প্রতিবছর এই সময় নেপালে পাড়ি জমায়। এ বছর এই মৌসুম শুরুর আগে বহু পর্বতারোহী প্রশিক্ষণ চালিয়ে যাচ্ছেন।

Post A Comment: