ভারতের বিপক্ষে চলতি চতুর্থ ও শেষ টেস্টে সেঞ্চুরি পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। চলতি সিরিজে চার টেস্টে এটি তার তৃতীয় সেঞ্চুরি। আর টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০তম। এভাবে খেলতে থাকলে খুব শিগগিরই কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকারকে ছড়িয়ে যাবেন স্মিথ, এমনটাই ধারণা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান ব্র্যাড হজের। বয়স মাত্র ২৭। ২০১০ সালে টেস্ট অভিষেকের পরে পাঁচ বছরে খেলেছেন ৫৩ ম্যাচে ৯৮ ইনিংস। আর এতেই নিজের ঝুলিতে ভরে নিয়েছেন ২০টি সেঞ্চুরি। ফক্স স্পোর্টস নিউজে এক সাক্ষাৎকারে হজ এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান সম্পর্কে বলেন, ’৪০ বা ৫০ তার নাগালের মধ্যেই থাকে। সে একজন বড় তারকা। আমি মনে করি, সে শচিন এবং পন্টিংকে খুব শিগগিরই পেছনে ফেলবে।’

  
ভারতের বিপক্ষে চলতি চতুর্থ ও শেষ টেস্টে সেঞ্চুরি পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। চলতি সিরিজে চার টেস্টে এটি তার তৃতীয় সেঞ্চুরি। আর টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০তম। এভাবে খেলতে থাকলে খুব শিগগিরই কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকারকে ছড়িয়ে যাবেন স্মিথ, এমনটাই ধারণা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান ব্র্যাড হজের।

বয়স মাত্র ২৭। ২০১০ সালে টেস্ট অভিষেকের পরে পাঁচ বছরে খেলেছেন ৫৩ ম্যাচে ৯৮ ইনিংস। আর এতেই নিজের ঝুলিতে ভরে নিয়েছেন ২০টি সেঞ্চুরি। ফক্স স্পোর্টস নিউজে এক সাক্ষাৎকারে হজ এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান সম্পর্কে বলেন, ’৪০ বা ৫০ তার নাগালের মধ্যেই থাকে। সে একজন বড় তারকা। আমি মনে করি, সে শচিন এবং পন্টিংকে খুব শিগগিরই পেছনে ফেলবে।’

টেস্ট ক্যারিয়ারে ২০০ টি ইনিংস খেলে শচিন করেছেন ৫১টি সেঞ্চুরি। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেটার জ্যাক ক্যালিস করেছেন ৪৫ই সেঞ্চুরি,। তার ইনিংসের সংখ্যা ১৬৬ আর অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং ১৬৮ ইনিংসে করেছেন ৪১টি সেঞ্চুরি।

ব্যাটিং টেকনিক ধরে রেখে আরও ধৈর্য্যশীল হলে স্মিথ আরও বেশি সেঞ্চুরি করতে পারতেন বলে হজের ধারণা। তিনি বলেন, ‘সে ৪০-৫০ রান প্রায়ই করে। আমার মনে হয়, সে আরেকটু ধৈর্য্য দেখালে আরও বড় স্কোর বেশি বেশি করতে পারবে। যদি সে সেঞ্চুরির দিকে যেতে চায় আরও ধৈর্য্যশীল হতে হবে তাকে। টেকনিক্যালি সে দারুন। সবার থেকে ভিন্ন। মাত্রই তো ২০টি সেঞ্চুরি, এখনো অনেকটা সময় পরে আছে তার।’

হজের মতে, অস্ট্রেলিয়াকে সঠিক পথে রাখতে স্মিথ সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন। স্মিথের হাতেই বর্তমান অস্ট্রেলিয়া সব থেকে নিরাপদ। 

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Post A Comment: