তামিম ইকবালের কাছেই হারিয়েছিলেন শীর্ষস্থান। তবে সেটা অল্প সময়ের জন্যই। শততম টেস্টেই তামিমকে টপকে আবারও শীর্ষস্থান ফিরে পান বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের শততম টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে ৮২ রানের কার্যকরী এক ইনিংস খেলেন তামিম। এই ইনিংসের মধ্য দিয়ে সাকিব, মুশফিকুর রহিমদের টপকে সাদা পোশাকে বাংলাদেশের হয়ে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হিসেবে নাম লেখান বাঁ-হাতি এই ওপেনার।


তামিম ইকবালের কাছেই হারিয়েছিলেন শীর্ষস্থান। তবে সেটা অল্প সময়ের জন্যই। শততম টেস্টেই তামিমকে টপকে আবারও শীর্ষস্থান ফিরে পান বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের শততম টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে ৮২ রানের কার্যকরী এক ইনিংস খেলেন তামিম। এই ইনিংসের মধ্য দিয়ে সাকিব, মুশফিকুর রহিমদের টপকে সাদা পোশাকে বাংলাদেশের হয়ে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হিসেবে নাম লেখান বাঁ-হাতি এই ওপেনার।

তবে ওই ইনিংসেই চার নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৫ রান করেন সাকিব। আর তাতেই আবারও শীর্ষস্থান ফিরে পান বাঁ-হাতি এই অলরাউন্ডার। চতুর্থ ইনিংসে ব্যাট হাতে একটি সেঞ্চুরি ও চারটি হাফসেঞ্চুরি সহ সাকিবের সংগ্রহ ৬১৬ রান। আর তামিমের সংগ্রহ ৬০৫ রান। দু’জনই ১৮ বার চতুর্থ ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামেন।

এই তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছেন সাদা পোশাকে বাংলাদেশের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। চতুর্থ ইনিংসে ১৭ বার ব্যাটিংয়ে নেমে একটি সেঞ্চুরি ও তিনটি হাফসেঞ্চুরির সাহায্যে মুশফিক করেছেন ৬০২ রান। শততম টেস্টের চতুর্থ ইনিংসে অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান অপরাজিত থাকেন ২২ রানে। এছাড়া ১১ বার ব্যাট হাতে নেমে ৩১৯ রান করে তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

Post A Comment: