এসএসসি পরীক্ষায় নকলসহ ধরা পড়ার পর তৃতীয় তলার পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে লাফ দেয় এক পরীক্ষার্থী। ভারতের কাঞ্চনবাগের বিদ্যাদায়িনী স্কুলের পরীক্ষা কেন্দ্রটিতে মঙ্গলবার এ ঘটনাটি ঘটে। সংহিত রেড্ডি নামে সে ছাত্র হাতে ও শরীরের বেশ কয়েক জায়গায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। তাকে দ্রুত স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তার অবস্থা বর্তমানে স্বাভাবিক আছে বলে জানানো হয়। ১৫ বছর বয়সী সংহিত রেড্ডি ভাশায়াম স্কুলের ছাত্র। কাঞ্চনবাগের পুলিশ পরিদর্শক এন শঙ্কর জানান, ‘নকল করা অবস্থায় পরীক্ষা পরিদর্শকের হাতে ধরা পড়ে ছেলেটি। তাকে পরীক্ষার হল ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়।’


এসএসসি পরীক্ষায় নকলসহ ধরা পড়ার পর তৃতীয় তলার পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে লাফ দেয় এক পরীক্ষার্থী। ভারতের কাঞ্চনবাগের বিদ্যাদায়িনী স্কুলের পরীক্ষা কেন্দ্রটিতে মঙ্গলবার এ ঘটনাটি ঘটে। সংহিত রেড্ডি নামে সে ছাত্র হাতে ও শরীরের বেশ কয়েক জায়গায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। তাকে দ্রুত স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তার অবস্থা বর্তমানে স্বাভাবিক আছে বলে জানানো হয়।


১৫ বছর বয়সী সংহিত রেড্ডি ভাশায়াম স্কুলের ছাত্র। কাঞ্চনবাগের পুলিশ পরিদর্শক এন শঙ্কর জানান, ‘নকল করা অবস্থায় পরীক্ষা পরিদর্শকের হাতে ধরা পড়ে ছেলেটি। তাকে পরীক্ষার হল ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়।’


নকলসহ ছেলেটিকে ধরে পরিদর্শক তাকে সুপারিনটেনডেন্ট অব এক্সাজমস (এস ই) এর কাছে নিয়ে যান। সে উর্ধ্বতন সরকারী কর্মকর্তা ছেলেটির খাতা বাজেয়াপ্ত করে এবং তাকে বকাঝকা করে। অপমানিত ও অপদস্থ সংহিত তৃতীয় তলায় যান এবং সেখান থেকে লাফ দেন। তার হাত, পিঠ ও তলপেটে আঘাত লেগেছে।


ঘটনার পর ছাত্রটির মা ও আত্মীয়স্বজন থানার সামনে ধর্না(অবস্থান কর্মসূচী) দেন। তারা স্কুলের কাছ থেকে ছেলেটির চিকিৎসার খরচ দাবি করেন।


কিশোর বিচার আইন, ২০১৫ এর আাওতায় একটি মামলা নিয়েছে পুলিশ।

Post A Comment: