বিএনপি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জনসংযোগ-জন সচেতনতা ও জনমত বাড়িয়ে আন্দোলনমুখী হওয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে। জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলোতে সোচ্চার হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ১৯ মার্চ রোববার দৈনিক ইত্তেফাকে প্রকাশিত ‘জনমত গঠনে মাঠে বিএনপি’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজপথে বিএনপির মিছিল-সমাবেশে প্রশাসনের প্রতিবন্ধকতার প্রেক্ষাপটে তাদের দাবি-দাওয়া ও সরকারের বিরুদ্ধে বক্তব্যগুলো জনগণের কাছে তুলে ধরার বিকল্প মাধ্যম হিসেবে জনসংযোগ-লিফলেট ও পোস্টারিং করা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের দাবি জোরালো করতে সারাদেশে ব্যাপক তত্পরতা চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন দলের হাইকমান্ড।


বিএনপি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জনসংযোগ-জন সচেতনতা ও জনমত বাড়িয়ে আন্দোলনমুখী হওয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে। জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলোতে সোচ্চার হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ১৯ মার্চ রোববার দৈনিক ইত্তেফাকে প্রকাশিত ‘জনমত গঠনে মাঠে বিএনপি’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজপথে বিএনপির মিছিল-সমাবেশে প্রশাসনের প্রতিবন্ধকতার প্রেক্ষাপটে তাদের দাবি-দাওয়া ও সরকারের বিরুদ্ধে বক্তব্যগুলো  জনগণের কাছে তুলে ধরার বিকল্প মাধ্যম হিসেবে জনসংযোগ-লিফলেট ও পোস্টারিং করা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের দাবি জোরালো করতে সারাদেশে ব্যাপক তত্পরতা চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন দলের হাইকমান্ড।

দলীয় সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, বিএনপি ধীরে ধীরে সামনে এগোতে চাচ্ছে। হঠাত্ কর্মসূচি দিয়ে গুটিয়ে যাওয়ার পক্ষপাতি নয় তারা। নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে তারা আরো কিছুটা সময় নিয়ে জোরালো আন্দোলন গড়ে তোলার পরিকল্পনা করছে। তবে তার আগে গুরুত্বসহকারে নেওয়া হয়েছে জনমত গঠনের বিষয়টি ।

জানা গেছে, সারাদেশে সভা-সমাবেশ ও প্রচার-প্রচারণার দাবি আরো জোরালো করতে বলা হয়েছে। সারাদেশে লক্ষাধিক পোস্টার এবং অসংখ্য লিফলেট পাঠানো হয়েছে। বিএনপি এবং অঙ্গ সংগঠনগুলোর নেতাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে জেলা এবং থানা কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ সিনিয়র নেতারা নিজহাতে পোস্টার লাগিয়ে উদ্বোধন করবেন। এই নির্দেশনা অনুযায়ী বিএনপির জেলা কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকরা দেয়ালে পোস্টার লাগিয়ে সেই আলোকচিত্র পাঠাচ্ছেন চেয়ারপার্সনের গুলশান অফিসে। দেওয়া হচ্ছে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং পত্রপত্রিকায়।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে বিভাগীয় শহরগুলোতে সমাবেশ করতে পারেন বেগম খালেদা জিয়া। তার আগে তিনি চিকিত্সার জন্য লন্ডনে যাবেন।

এদিকে ছাত্রদলকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্র-ছাত্রীদের স্বার্থসংশ্লিস্ট দাবি নিয়ে প্রচার-প্রচারণায় নামতে পরামর্শ দিয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া। বর্তমান শিক্ষানীতি বাতিলসহ ২৪ দফা দাবি তুলে ধরা হয়েছে তাদের লিফলেটে। শিগগিরই এই লিফলেট পাঠানো হবে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রদল নেতাদের কাছে। লিফলেটের শিরোনাম দেওয়া হয়েছে : ‘সন্ত্রাস, দুর্নীতিমুক্ত ও শিক্ষা উপযোগী ক্যাম্পাস বিনির্মাণে ছাত্রদলের দাবি’।

Post A Comment: