নাটোরে শুধু বনলতা সেনই আছে এমন নয়। এখানকার আরেকটি অনন্য উপহার হল প্রাণহারা। মুখে দিলে গলে যায় এমন নরম, মোলায়েম এই মিষ্টি যে একবার খেয়েছেন তাঁর ভুলে যাবার কথা নয় কখনোই। হ্যাঁ, আপনার ঘরে তৈরি প্রাণহারাতেও আসবে এমনই মন হরণ করা জাদু। কীভাবে? জানাচ্ছেন স্বনামধন্য শৌখিন রন্ধনশিল্পী রোয়েনা মাহজাবীন।


নাটোরে শুধু বনলতা সেনই আছে এমন নয়। এখানকার আরেকটি অনন্য উপহার হল প্রাণহারা। মুখে দিলে গলে যায় এমন নরম, মোলায়েম এই মিষ্টি যে একবার খেয়েছেন তাঁর ভুলে যাবার কথা নয় কখনোই। হ্যাঁ, আপনার ঘরে তৈরি প্রাণহারাতেও আসবে এমনই মন হরণ করা জাদু। কীভাবে? জানাচ্ছেন স্বনামধন্য শৌখিন রন্ধনশিল্পী রোয়েনা মাহজাবীন। 
 
উপকরণ:
ছানা- ২ কাপ (২ লিটার দুধ থেকে করা)
চিনি- ১/২ কাপ অথবা স্বাদমত
ঘি- ১ টেবিল চামচ
এলাচ দানা গুঁড়ো- ১/২ চামচ
পাউডার দুধ অথবা মাওয়া- ১/৪ কাপ
ডানো ক্রিম অথবা ভারী ক্রিম বা দুধের সর- ২/৩ টেবিল চামচ

প্রনালি:
-প্রথমে একটি হাঁড়িতে দুধটুকু গরম দিন। দুধ ফুটে উঠলে ৩/৪ টেবিল চামচ লেবু বা ভিনেগার যোগ করুন। 
-এরপরই দুধ ছানা হতে শুরু করবে। পুরো ছানা হয়ে যাবার পর চুলা বন্ধ করে দিন। একটি পরিষ্কার কাপড়ে ছানা ছেঁকে নিন। এসময় স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি ছানার উপর ঢেলে দেবেন, এতে লেবুর টক ভাবটা কেটে যাবে। 
-কাপড়ে বেঁধে ছানা ঝুলিয়ে রাখুন যতক্ষণ না পুরো পানি ঝরে যায় আর ছানা শুকনো হয়ে আসে। 
-এবার একটা পাত্রে ছানা হাতের তালু দিয়ে ছেনে নিন যতক্ষণ না পর্যন্ত পুরোপুরি মিশে যায়। একসময়ে একদম ঝরঝরে হয়ে আসবে। 
-এরপর চুলায় একটি প্যান দিন। ছানা অর্ধেক পরিমাণ, চিনি, এলাচ গুঁড়ো, ঘি একসাথে দিয়ে নাড়তে থাকুন। 
-চিনিটা মিশে গেলে বাকি ছানা আর ক্রিমটুকু দিয়ে নাড়তে থাকুন। ভালভাবে মিশে গেলে নামিয়ে ফেলুন। 
-এরপর পাউডার দুধ বা মাওয়া ভালমত মিশিয়ে নিতে হবে। এই মন্ডটা ঠান্ডা হলে আরও নরম হয়ে যাবে। তাই আধ ঘন্টা ফ্রিজে রাখুন। ফ্রিজ থেকে বের হাতে গোল করে লাড্ডুর শেপ দিন। মাওয়ার গুড়োতে গড়িয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার প্রাণহারা বা কাঁচা গোল্লা।

Post A Comment: