অন্তত চারটি প্রধান মার্কিন প্রতিষ্ঠান চরমপন্থি কনটেন্টের কারণে সার্চ জায়ান্ট গুগল থেকে বিজ্ঞাপন সরিয়ে ফেলেছে। টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন টেলিকম প্রতিষ্ঠান এটিঅ্যান্ডটি, ভেরাইজন এবং জনসন অ্যান্ড জনসন নন সার্চ বিজ্ঞাপনগুলো প্রত্যাহার করে নিয়েছে। সংবাদপত্রের তদন্তে দেখা গেছে, বেশ কিছু বড় প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ইউটিউব ভিডিও চরমপন্থি কনটেন্ট প্রচার করে থাকে। ভিডিওগুলোর মধ্যে সন্ত্রাসবাদ সমর্থন করে এমন, কিংবা ইহুদি বিদ্বেষ, চরমপন্থী বিষয়বস্তু তুলে ধরার বিষয় রয়েছে। ফলে প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের ইউটিউবের জন্য বরাদ্দ করা বাজেট সরিয়ে নেয় এবং ভিডিও দেখার জনপ্রিয় এই ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করে দেয়।

-- 

অন্তত চারটি প্রধান মার্কিন প্রতিষ্ঠান চরমপন্থি কনটেন্টের কারণে সার্চ জায়ান্ট গুগল থেকে বিজ্ঞাপন সরিয়ে ফেলেছে। টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন টেলিকম প্রতিষ্ঠান এটিঅ্যান্ডটি, ভেরাইজন এবং জনসন অ্যান্ড জনসন নন সার্চ বিজ্ঞাপনগুলো প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

সংবাদপত্রের তদন্তে দেখা গেছে, বেশ কিছু বড় প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ইউটিউব ভিডিও চরমপন্থি কনটেন্ট প্রচার করে থাকে। ভিডিওগুলোর মধ্যে সন্ত্রাসবাদ সমর্থন করে এমন, কিংবা ইহুদি বিদ্বেষ, চরমপন্থী বিষয়বস্তু তুলে ধরার বিষয় রয়েছে। ফলে প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের ইউটিউবের জন্য বরাদ্দ করা বাজেট সরিয়ে নেয় এবং ভিডিও দেখার জনপ্রিয় এই ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করে দেয়। 

এদিকে বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম বিজ্ঞাপন ও বিপণন প্রতিষ্ঠান হ্যাবাস গত শুক্রবার ওটু, বিবিসি এবং ডমিনো পিৎজাসহ যুক্তরাজ্যের সব গ্রাহককে বিজ্ঞাপন গুগল এবং ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেয়। একই সঙ্গে যুক্তরাজ্য সরকার, দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকা, লন্ডন পরিবহন ও ল’রিয়ালের সব বিজ্ঞাপনও সরিয়ে নেওয়া হয়।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত সপ্তাহে ইউটিউব বিজ্ঞাপনের নীতি পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়াও গুগল এমন ঘটনায় বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছে এবং আরও উন্নত টুল নিয়ে আসার প্রতিজ্ঞাও করেছে। 

সূত্র: বিবিসি

Post A Comment: