ভূমিগ্রাসীদের কড়াল থাবায় মাত্র দুই যুগের ব্যবধানে ঢাকার মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে আদি বুড়িগঙ্গা নদী। বুড়িগঙ্গার মূল স্রোতধারা থেকে বেরিয়ে ইসলামবাগ হয়ে গাবতলী পর্যন্ত বয়ে যাওয়া শাখা নদীই আদি বুড়িগঙ্গা। সাড়ে ১৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এ নৌ রুটের ১১ কিলোমিটার এলাকাতেই বর্তমানে নেই নদীর অস্তিত্ব। ৩ মার্চ শুক্রবার সময় টিভির এক প্রতিবেদনে এ সব তথ্য উঠে এসেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লাগামহীন দখলে বুড়িগঙ্গার এ শাখা নদীর অস্তিত্বই আজ বিলীন হতে বসেছে। যে সামান্য এলাকা টিকে আছে, সেখানেও চলছে দখলদারদের রাজত্ব। এসব প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন পরিবেশবিদরা। এই নদী উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে একটি কমিটি গঠন হলেও এখনো মূল কাজে নামতে পারেনি সংশ্লিষ্ট টাস্কফোর্স। সঙ্গত কারণে শুষ্ক খালে পরিণত হয়েছে অবশিষ্ট নদীর সিংহভাগ, সৃষ্টি হয়েছে ঝাউ জঙ্গলের। মাঝ নদীতে সাইনবোর্ড টানিয়ে মালিকানা জাহির করছেন কেউ কেউ। কোথাও আবার অনুমোদনহীন সেতুর ছড়াছড়ি। বুড়িগঙ্গার এই আদি চ্যানেলটি দখলমুক্ত করে রাজধানী ঘিরে চক্রাকার পানিপথের আওতায় নিয়ে আসার পরিকল্পনাও রয়েছে টাস্কফোর্সের।

 

  ভূমিগ্রাসীদের কড়াল থাবায় মাত্র দুই যুগের ব্যবধানে ঢাকার মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে আদি বুড়িগঙ্গা নদী। বুড়িগঙ্গার মূল স্রোতধারা থেকে বেরিয়ে ইসলামবাগ হয়ে গাবতলী পর্যন্ত বয়ে যাওয়া শাখা নদীই আদি বুড়িগঙ্গা। 


সাড়ে ১৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এ নৌ রুটের ১১ কিলোমিটার এলাকাতেই বর্তমানে নেই নদীর অস্তিত্ব। ৩ মার্চ শুক্রবার সময় টিভির এক প্রতিবেদনে এ সব তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লাগামহীন দখলে বুড়িগঙ্গার এ শাখা নদীর অস্তিত্বই আজ বিলীন হতে বসেছে। যে সামান্য এলাকা টিকে আছে, সেখানেও চলছে দখলদারদের রাজত্ব। এসব প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন পরিবেশবিদরা। এই নদী উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে একটি কমিটি গঠন হলেও এখনো মূল কাজে নামতে পারেনি সংশ্লিষ্ট টাস্কফোর্স।


সঙ্গত কারণে শুষ্ক খালে পরিণত হয়েছে অবশিষ্ট নদীর সিংহভাগ, সৃষ্টি হয়েছে ঝাউ জঙ্গলের। মাঝ নদীতে সাইনবোর্ড টানিয়ে মালিকানা জাহির করছেন কেউ কেউ। কোথাও আবার অনুমোদনহীন সেতুর ছড়াছড়ি। বুড়িগঙ্গার এই আদি চ্যানেলটি দখলমুক্ত করে রাজধানী ঘিরে চক্রাকার পানিপথের আওতায় নিয়ে আসার পরিকল্পনাও রয়েছে টাস্কফোর্সের।

Post A Comment: