নেদারল্যান্ডের হেগ শহরে অবস্থিত রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ সংস্থার (ওপিসিডব্লিউ) নির্বাহী পর্ষদের চেয়ারপারসন নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশ। এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সংস্থাটির একটি শীর্ষ পদে নির্বাচিত হয়েছে। ৯ মার্চ বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, নেদারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এবং ওপিসিডব্লিউ-তে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি শেখ মুহম্মদ বেলাল সংস্থাটির নির্বাহী পর্ষদের চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। চলতি বছরের ১২ মে থেকে ২০১৮ সালের ১১ মে পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।


  নেদারল্যান্ডের হেগ শহরে অবস্থিত রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ সংস্থার (ওপিসিডব্লিউ) নির্বাহী পর্ষদের চেয়ারপারসন নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশ। এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সংস্থাটির একটি শীর্ষ পদে নির্বাচিত হয়েছে।  ৯ মার্চ বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, নেদারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এবং ওপিসিডব্লিউ-তে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি শেখ মুহম্মদ বেলাল সংস্থাটির নির্বাহী পর্ষদের চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। চলতি বছরের ১২ মে থেকে ২০১৮ সালের ১১ মে পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

৪১ সদস্যের ওপিসিডব্লিউ-এর নির্বাহী পর্ষদের ৮৪তম অধিবেশনে ২০১৭-২০১৮ বছরের জন্যে সদস্য দেশগুলোর সম্মতিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে নির্বাচিত করা হয়। গত ৭ মার্চ শুরু হওয়া এ অধিবেশন চলবে ১০ মার্চ পর্যন্ত।

বাংলাদেশ রাসায়নিক অস্ত্র কনভেনশনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। ওপিসিডব্লিউ হলো রাসায়নিক অস্ত্র কনভেনশন বাস্তবায়নকারী সংস্থা, যা সদস্য দেশ সমূহকে পর্যবেক্ষণ করে থাকে এবং সদদ্য দেশ সমূহের বাধ্যতামূলক বাৎসরিক প্রতিবেদনের সত্যতা যাচাই করে। এছাড়াও তালিকাভূক্ত নির্দিষ্ট রাসায়নিক দ্রব্যের চলাচল নিয়ন্ত্রণ এবং সচিবালয়ের পরিদর্শকদের নিয়মিত পরিদর্শনের ব্যবস্থা করে থাকে।  

রাসায়নিক অস্ত্র বিস্তার প্রতিরোধে অসামান্য অবদানের জন্য ওপিসিডব্লিউ ২০১৩ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছে। 

Post A Comment: