সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় প্রবল জোয়ারে কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধ ভেঙে একটি গ্রাম ও দুইশ বিঘা জমির মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের চাকলায় কপোতাক্ষের বেড়িবাঁধ ভেঙে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়।
কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত গ্রাম


 

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় প্রবল জোয়ারে কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধ ভেঙে একটি গ্রাম ও দুইশ বিঘা জমির মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের চাকলায় কপোতাক্ষের বেড়িবাঁধ ভেঙে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়।


চাকলা গ্রামের বাসিন্দা আকবর ঢালী, আইয়ুব আলী জানান, রাতে প্রবল জোয়ারের চাপে কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধের প্রায় দুইশ ফুট এলাকা জুড়ে ভেঙে নদী গর্ভে ধসে পড়ে। এতে চাকলা গ্রামের দেড় শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ভেসে গেছে ওই এলাকার সব মৎস্য ঘের।

প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জানান, কপোতাক্ষ নদের চাকলা পয়েন্টের বেড়িবাঁধ দীর্ঘদিন ধরে জরাজীর্ণ অবস্থায় ছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বার বার বলা সত্ত্বেও তারা সংস্কারের উদ্যোগ না নেওয়ায় রাতে বেড়িবাঁধের প্রায় দুইশ ফুট এলাকা জুড়ে ভেঙে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এলাকাবাসীকে নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে রিং বাধ দিয়ে ভাঙন কবলিত বাধ সংস্কারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের কোনো কর্মকর্তা এখনো ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাননি বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী বিএম আব্দুল মোমিন ও এসও সরোয়ার হোসেনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

Post A Comment: