সোয়াইন ফ্লুতে সয়লাব মালদ্বীপে। গোটা দেশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বন্ধ হয়ে গেছে স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়। এ ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে সফর স্থগিত করতে বাধ্য হয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ। খবর নিউইয়র্ক টাইমস ও খালিজ টাইমসের।
 


সোয়াইন ফ্লুতে সয়লাব মালদ্বীপে। গোটা দেশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বন্ধ হয়ে গেছে স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়। এ ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে সফর স্থগিত করতে বাধ্য হয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ।

গত শনিবারেই সৌদি বাদশাহর মালদ্বীপ সফরের কথা ছিল। কিন্তু হঠাৎ করেই তিনি তার এ সফর স্থগিত করতে বাধ্য হলেন। শুক্রবার মালদ্বীপ সরকার জানায়, সৌদি বাদশাহ তার নির্ধারিত আনুষ্ঠানিক সফর বাতিল করেছেন। কারণ হিসেবে বলেছেন, দেশে সোয়াইন ফ্লুর প্রাদুর্ভাব ঘটেছে।


মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের কার্যালয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ আসিমের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, সৌদি বাদশাহর সফরের তারিখ পরবর্তী সময়ে আবারও নির্ধারণ করা হবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত জানুয়ারি থেকে ৩ লাখ ৪০ হাজার মানুষের দেশ মালদ্বীপে ১০৫ জনের মধ্যে সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস এইচওয়ানএনওয়ান-এর উপস্থিতি ধরা পড়েছে। এরই মধ্যে দু'জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ পরিস্থিতিতে সোয়াইন ফ্লুর সংক্রমণ থামাতে স্কুল-কলেজ বন্ধ রেখেছে মালদ্বীপ সরকার।

ভারত মহাসাগরীয় এই দ্বীপরাষ্ট্রে তেলসমৃদ্ধ দেশটির বিনিয়োগের পরিকল্পনার কারণে সম্প্রতি মালদ্বীপে বিরোধী দলগুলো বেশ বড় ধরনের বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। তাই সোয়াইন ফ্লুর কারণে, না কি সেই বিক্ষোভের কারণে সৌদি বাদশাহ সফর বাতিল করেছেন কি-না তা পরিষ্কার নয়।

ভারতীয় দৈনিক সিয়াসত-এর এক প্রতিবেদনে শীর্ষ পর্যায়ের সূত্রের বরাতে বলা হয়েছে, দেশটিতে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করা হচ্ছে। সে কারণেই সৌদি বাদশাহর এই সফর বাতিল করা হয়েছে। তবে মালদ্বীপের কয়েকটি গণমাধ্যম দাবি করেছে, বিরোধীদের সৌদিবিরোধী চলমান বিক্ষোভের জেরে এ সফর বাতিল হয়েছে।

এশিয়ায় বিভিন্ন দেশে মাসব্যাপী জাঁকজমকপূর্ণ সফরে বেরিয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ। পূর্ব এশিয়ার পাঁচটি দেশে ৩১ দিন সফর করবেন বাদশাহ সালমান। প্রথমেই তিনি মালয়েশিয়ায় তিনদিন সফর করেন।

Post A Comment: