সিরাজগঞ্জে একটি প্রাইমারী স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নের হাট সারটিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
Sirajganj-AL-factional-clash-injures-10
 

সিরাজগঞ্জে একটি প্রাইমারী স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নের হাট সারটিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।


আহতরা হলেন- সয়দাবাদ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল (৩০), ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সবুজ (২০), সাংগঠনিক সম্পাদক সেতু (২০), যুগ্ম সম্পাদক মুক্তার, ছাত্রলীগ নেতা মিঠু, শরীফসহ ১০ জন।

সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইদুল ইসলাম রাজা জানান, হাট সারটিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে বৈঠক চলছিল। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান নবিদুল ও তার ভাই আব্দুল মমিনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ছাত্রলীগ নেতা সবুজসহ অন্যান্যদের মারপিট করে। এতে রুবেল ও সবুজসহ অন্তত ৭ জন আহত হয়। আহতদের সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালসহ স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

সয়দাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নবিদুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে ডিগ্রির চর গ্রামের মজিবর রহমান ও হাট সারটিয়া গ্রামের সন্তোষ প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছিলেন। দুপুরে কমিটি গঠন নিয়ে মজিবর রহমানের ছেলে ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সবুজ বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে সন্তোষ গ্রুপের উপর হামলা চালায়। পরে সন্তোষ গ্রুপের লোকজ পাল্টা হামলা চালালে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন জানান, ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

Post A Comment: