গাজীপুরের কালীগঞ্জে চোর সন্দেহে অজ্ঞাত (৩২) এক যুবককে পিটিয়েছে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার গভীর রাতে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ঘোনাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ বুধবার দুপুরে অজ্ঞাত ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।
Man-suspected-thief-was-beaten-to-death-in-Gazipur

গাজীপুরের কালীগঞ্জে চোর সন্দেহে অজ্ঞাত (৩২) এক যুবককে পিটিয়েছে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার গভীর রাতে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ঘোনাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ বুধবার দুপুরে অজ্ঞাত ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।


নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন।

অজ্ঞাত ওই যুবকের পরিধানে কালো আন্ডারওয়ার ও গায়ে লাল-সবুজ গেঞ্জি ছাড়াও পাশে রক্ত মাখা একটি গামছা ও একটি অফ হোয়াইট কালার প্যান্ট ছিল। ঘটনার পর কালীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পঙ্কজ দত্ত, কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলম চাঁদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার ভোর ৪টার দিকে চিৎকার শুনতে পায় স্থানীয়রা। পরে সকালে তারা গুরুতর আহত অবস্থায় এক যুবককে রেল লাইন থেকে ২৪-২৫ ফুট দূরে পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় গুরুতর আহত ওই যুবকের সাথে কথাও বলেন স্থানীয়রা। সে স্থানীয়দের জানায় তার বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব উপজেলায়। থাকেন টঙ্গীর বাস্তহারা এলাকায়।

সূত্র আরো জানায়, ভোরে উপজেলার ঘোনাপাড়া গ্রামের রহিম মিয়ার ছেলে শাওন মিয়ার বাড়িতে চুরি করার জন্য যায়। এ সময় শাওন তাকে দেখে চিৎকার শুরু করে। পরে তার ভাই রানা ও শাওন মিলে কামাল হোসেনের বাড়ির পাশ থেকে আটক করে। ধারণা করা হচ্ছে এ সময় তাদের এলোপাথাড়ি আঘাতে তার মৃত্যু হতে পারে।

কালীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পঙ্কজ দত্ত জানান, ঘটনার পর তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ওই যুবককে অমানবিকভাবে পেটানোর কারণে তার মৃত্যু হয়েছে।

তিনি আরো জানান, প্রাথমিক সুরতহালে তার দুটি পা ভাঙা, হাতে জখম এবং কোমরের দিকে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। থানায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

Post A Comment: