রাজধানীর হাতিরঝিলে অবৈধভাবে স্থাপিত বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) বহুতল ভবন সাত দিনের মধ্যে ভাঙার পদক্ষেপ নিতে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যানকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে পদক্ষেপ না নিলে রাজউক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আদালত অবমানার অভিযোগ আনা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।রাজধানীর হাতিরঝিলে অবৈধভাবে স্থাপিত বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) বহুতল ভবন সাত দিনের মধ্যে ভাঙার পদক্ষেপ নিতে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যানকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে পদক্ষেপ না নিলে রাজউক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আদালত অবমানার অভিযোগ আনা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।
BGMEA-building-Notices-break-rajaukake

  

রাজধানীর হাতিরঝিলে অবৈধভাবে স্থাপিত বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) বহুতল ভবন সাত দিনের মধ্যে ভাঙার পদক্ষেপ নিতে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যানকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে পদক্ষেপ না নিলে রাজউক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আদালত অবমানার অভিযোগ আনা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।


নোটিশে রাজউক চেয়ারম্যানের উদ্দেশ্যে বলা হয়, ‘এ নোটিশ পাওয়ার সাত দিনের মধ্যে বিজিএমইএ ভবন ভাঙার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করে আমাকে (মনজিল মোরসেদ) অবহিত করবেন। অন্যথায় আপিল বিভাগে আপনার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হবে।’

বৃহস্পতিবার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এ নোটিশ পাঠান।

মনজিল মোরসেদ বলেন, ৯০ দিনের মধ্যে বিজিএমইএ ভবন ভাঙতে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে গত ২ জুন বিজিএমইএ'র আপিল খারিজ হয়ে যায়। রায়ে বলা হয়েছিল, বিজিএমইএ তাদের ভবন না ভাঙলে রাজউককে ভবন ভাঙতে হবে। কিন্তু রায়ের অনুলিপি পাওয়ার ৯০ দিন সময়সীমা গত ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হয়ে যায়। এরপরেও রাজউক চেয়ারম্যান ভবন ভাঙতে কার্যকর পদক্ষেপ না নেওয়া আদালতের রায়ের প্রতি অশ্রদ্ধা এবং আদেশ অমান্য করার শামিল।

Post A Comment: