রাজধানীর বাসাবো কদমতলা স্কুল এণ্ড কলেজের এক ছাত্রীকে বেতন কমানোর কথা বলে শ্লীলতাহানির চেষ্টায় কলেজটির গভর্নিং বডির সদস্য ও সবুজবাগ এলাকার ৫নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ পারভেজ আকন্দকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে সবুজবাগ থানার পুলিশ তাকে আটক করে আদালতে পাঠায়।

 

রাজধানীর বাসাবো কদমতলা স্কুল এণ্ড কলেজের এক ছাত্রীকে বেতন কমানোর কথা বলে শ্লীলতাহানির চেষ্টায় কলেজটির গভর্নিং বডির সদস্য ও সবুজবাগ এলাকার ৫নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ পারভেজ আকন্দকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে সবুজবাগ থানার পুলিশ তাকে আটক করে আদালতে পাঠায়।


ভিকটিমের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ১৩ মার্চ অভিযুক্ত মো. মাসুদ আকন্দ এক বুয়ার মাধ্যমে ওই ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে যায় তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে। একপর্যায়ে বেতন কমানোর কথা বলে তার গায়ে হাত দেয় এবং জোর করে  শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। মেয়েটি পালিয়ে দ্রুত অফিস ত্যাগ করে। এরপর সে তার পরিবারকে পুরো ঘটনা বলে। মেয়েটির পরিবার কলেজের অধ্যক্ষকে বিষয়টি জানায়।

জানা যায়, ঘটনাটি জানাজানির পর মেয়েটির পরিবারকে মাসুদ আকন্দ নানাভাবে হুমকি দেয়। সেই হুমকির ভয়ে ভিকটিমের পরিবার থানায় অভিযোগও করতে পারেনি।

কদমতলা স্কুল এণ্ড কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা ব্যাপারটা জানার পর শনিবার সকালে মাসুদের বিচার চেয়ে মানববন্ধন করে। সেখানে মাসুদের লোকজন এসে তাদের উপর হামলা চালায়। এ সব ঘটনা কলেজ কর্তৃপক্ষ সবুজবাগ থানায় জানালে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

ভিকটিমের এক আত্মীয় জানান, এই রকম ঘটনা মাসুদ আগেও ঘটিয়েছে। কিন্তু ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের নেতা হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ অভিযোগ করতে সাহস করেনি। কিন্তু আজ শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ায় তাকে আটক করতে পেরেছে পুলিশ।

কলেজের অধ্যক্ষ মো. সজল পরিবর্তন ডটকমকে জানান, ঘটনাটি ঘটেছে বেশ কিছুদিন আগে। অভিযুক্ত এই কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য। আমরা আমাদের কলেজ কমিটিকে ব্যাপারটি জানিয়েছি। আমাদের একজন ছাত্রীর উপর যৌন নিপীড়নের ঘটনা দুঃখজনক। আমরা চাই এ অন্যায়ের বিচার হোক।

বাসাবো কদমতলা স্কুল এণ্ড কলেজ কমিটির চেয়ারম্যান মো. ইয়াহিয়া বলেন, ঘটনাটা অবশ্যই দুঃখজনক। তবে অপরাধী যত শক্তিশালী হউক না কেন তার ব্যাপারে আমরা গর্ভনিং বডির সবাই জিরো টলারেন্সে আছি। ঘটনাটি যেহেতু একটি দলের রাজনৈতিক নেতা ঘটিয়েছেন তার জন্য আমরা স্থানীয় এমপি সাবের হোসেন চৌধুরীকে জানিয়েছি।

তিনি জানান, আজকে রাতেই গভর্নিং বডির মিটিং ডেকেছি। এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে সবুজবাগ থানার ওসি পরিবর্তন ডটকমকে জানান, মাসুদকে আজ দুপুরে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে, আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Post A Comment: