পেরুর বেশ কয়েকটি অঞ্চলে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ৭৫ জন মারা গেছে বলে জানা গেছে। সেদেশের বেশকয়েকটি জায়গায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লে অনেক মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে চলে যান।
 75-killed-in-floods-and-landslides-in-Peru


পেরুর বেশ কয়েকটি অঞ্চলে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ৭৫ জন মারা গেছে বলে জানা গেছে।  সেদেশের বেশকয়েকটি জায়গায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লে অনেক মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে চলে যান।



রোববার পেরুর লিমাশহরে পানির জন্য হাহাকার করতে থাকে সাধারন দুর্গত মানুষ। খবর ভোয়ার

তিনদিন ধরে সেখানকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ আছে। শহরটির মানুষজন পানিসংকটের ভেতর দিয়ে জীবনযাপন করছেন। সুপার মার্কেটগুলো বোতলজাত পানি পাওয়া গেলে, সেগলো চড়া দামের এবং প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম।




প্রবল বৃষ্টিপাতের জন্য বেশ কয়েকটি নদীর পানি তীর ছাপিয়ে যাওয়য় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে খবরে জানা গেছে। অনেক জায়গায় ট্রেন লাইনও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ফলে দেশটির যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটাই হুমকির মুখে পড়েছে।

দেশটির কতৃপক্ষ  জানিয়েছে, চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ভারী বর্ষণ ও আকস্মিক বন্যায় ৭৫ জন প্রাণ হারিয়েছে। শুক্রবার রাজধানী লিমার অধিবাসীরা ঘুম থেকে উঠে দেখতে পান তাদের চারপাশ তলিয়ে গেছে পানিতে।

এছাড়াও ভূমিধসের ঘটনায়  লিমার সঙ্গে দেশটির মধ্যাঞ্চলকে সংযোগকারী প্রধান সড়কটির একটি অংশ বন্ধ হয়ে গেছে। দুর্গত এলাকাগুলো পুনর্গঠনে সরকার ৭৬ কোটি ডলার বরাদ্দ করার ঘোষণা দিয়েছে। পাঁচ লাখের বেশি লোক এই সহায়তা পাবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

Post A Comment: