হবিগঞ্জে নানার বাড়ি বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রী। ওই ছাত্রীর মাকে মামলা না করার জন্য হুমকি দিয়েছেন ধর্ষকের বাবা।
5th-graders-of-brutality-in-Habiganj 


হবিগঞ্জে নানার বাড়ি বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রী। ওই ছাত্রীর মাকে মামলা না করার জন্য হুমকি দিয়েছেন ধর্ষকের বাবা।


মঙ্গলবার দুপুরে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল দেবপাড়া গ্রামে এ ধর্ষনের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মেয়েটি গ্রামের দাদন ব্যবসায়ী সমুজ আলীর পুত্র মিজান মিয়ার (২০) দোকানের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় মিজান থাকে ডেকে নিয়ে মুখে চাপা দিয়ে ধরে পাশের গ্যারেজে নিয়ে যায়। দীর্ঘ সময় মেয়ে বাড়ি না ফেরায় তার মা খুঁজতে বের হন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তিনি মেয়ের সন্ধান পান একটি গ্যারেজে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় মেয়েকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল নিয়ে আসেন।

ধর্ষণের শিকার মেয়েটি জানায়, “মিজান কাকু আমার সাথে খারাপ কাজ করেছে। আমার সাথে খারাপ কাজ শেষে আমার হাতে ৩০০ টাকা দিয়ে বলে, তুই এই টাকা তোর মামাকে দিবি। আমার কথা কিছু বলিস না।”

মেয়েটির মা জানান, “মিজানের বাবা সমুজ হাসপাতালে এসে হুমকি দিয়ে গিয়েছে, যেন মামলা না করি। মামলা করলে সে আমার পরিবারকে দেখে নিবে।”

Post A Comment: