প্রতি বছরই ভারতের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার ওয়েবসাইটে হামলা চালিয়ে থাকে হ্যাকাররা। তবে এ বছর পরিমাণ বেশ বেড়েছে। ভারতের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত দু’মাসে ভারতে সরকার পরিচালিত অন্তত ৩৯টি ওয়েবাসাইট হ্যাকারদের কবলে পড়েছে।


প্রতি বছরই ভারতের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার ওয়েবসাইটে হামলা চালিয়ে থাকে হ্যাকাররা। তবে এ বছর পরিমাণ বেশ বেড়েছে। ভারতের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত দু’মাসে ভারতে সরকার পরিচালিত অন্তত ৩৯টি ওয়েবাসাইট হ্যাকারদের কবলে পড়েছে।
   
এগুলোর মধ্যে যেমন কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট রয়েছে তেমনই রাজ্য সরকারের পরিচালিত সাইটও আছে। তবে কোন কোন ওয়েবসাইট হ্যাকার দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে তা জানানো হয়নি। তবে ভারত সরকারের নানা প্রকল্প, সরকার পরিচালিত সংস্থা, স্বশাসিত এবং স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার ওয়েবসাইটে হ্যাকাররা অনুপ্রবেশ করেছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। 

ভারতের তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের পরিসংখ্যান বলছে, ধারাবাহিকভাবে এই আক্রমণের পরিমাণ বেড়েই চলেছে। গেল ২০১৪ সালে ভারত সরকার পরিচালিত মোট ১৫৫টি ওয়েবসাইট হ্যাকারদের কবলে পড়ে। পরের বছর এই সংখ্যা ছিল ১৬৪টি। আর ২০১৬ সালে আড়াইশ’র বেশি সরকারি ওয়েবসাইট হ্যাকারদের দখলে যায়। কর্তৃপক্ষের আশঙ্কা, সম্ভবত এ বছর আক্রান্ত ওয়েবসাইটের সংখ্যাটি আরও বাড়বে। 

ভারত সরকারের ওয়েবসাইটগুলো মূলত দেশটির এনআইসি (National Informatics Center) তদারকি করে থাকে। তাদের দাবি, এই ওয়েবসাইটগুলোয় সাধারণত প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর মৌলবাদী বিভিন্ন সংগঠন অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে থাকে। আবার অনেক হ্যাকার নিছক শখের বশে এই কাজ করে। 

এছাড়া সরকারের গুরুত্বপূর্ণ নথি হাতিয়ে নেওয়ার উদ্দেশ্যে এই অপকর্মগুলো হ্যাকাররা করে থাকে। আবার সরকারকে বিব্রত করাও হ্যাকারদের অন্যতম উদ্দেশ্য বলে জানিয়েছে এনআইসি।  

Post A Comment: