সিলেটের পাথর কোয়ারির গর্তে মাটিচাপা পড়ে আবারও তিন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিনগত রাড় আড়াইটার দিকে জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলার বিছানাকান্দি কোয়ারিতে পাথর উত্তোলনের সময় এ ঘটনা ঘটে।

সিলেটের পাথর কোয়ারির গর্তে মাটিচাপা পড়ে আবারও তিন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিনগত রাড় আড়াইটার দিকে জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলার বিছানাকান্দি কোয়ারিতে পাথর উত্তোলনের সময় এ ঘটনা ঘটে। 

সিলেটে মাটিচাপায় ৩ শ্রমিক নিহত, লাশ গুমের অভিযোগ

তবে ঘটনা ধামাচাপা দিতে রাতের আঁধারেই বাদেপাশা খেয়াঘাট সংলগ্ন বাছিত মিয়ার মালিকানাধীন গর্তের ওই তিন শ্রমিকদের লাশ গুম করে ফেলা হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শুক্রবার সকালে সুনামগঞ্জ থেকে দু'জন শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করে। তারা হলেন, সুনামগঞ্জ সদরের গুলের গাঁওয়ের জাকির হোসেন (২০) ও তোলা মিয়া (২৫)। অপর এক শ্রমিকের লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন গোয়াইনঘাটের ওসি দেলোয়ার হোসেন।

তিনি জানান, শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ দু'জনের লাশ উদ্ধার করেছে। বাকি শ্রমিকের লাশও উদ্ধারে তৎপরতা চলছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পাথর উত্তোলনের সময় মাটিচাপায় তিন শ্রমিকের মৃত্যু হলেও এটি স্থানীয় প্রশাসন বা জনপ্রতিনিধিদের না জানিয়ে লাশ গুমের চেষ্টা চলে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে অনেক খোঁজাখুজির পরও কোনো লাশ পায়নি। পরে অন্যান্য শ্রমিকদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে সুনামগঞ্জ ও দিরাই পুলিশের সহযোগিতায় দু'জন শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত ২৩ জানুয়ারি সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার শাহ আরপিন টিলায় একইভাবে গর্ত করে পাথর তোলার সময় মাটিচাপায় পাঁচ শ্রমিকের মৃত্যু হয়। তখনও তিনজনের লাশ প্রভাবশালীরা সরিয়ে ফেলে। পরে নেত্রকোনা থেকে লাশগুলো উদ্ধার করে পুলিশ।

Post A Comment: