প্রযোজক-পরিচালক করণ জোহরের আত্মজীবনী ‘অ্যান আনসুটেবল বয়’ একের পর বোমা ফাটিয়ে চলেছে। সমকামিতার পর আলোচনার ঝড় তুলেছে অভিনেত্রী কাজলের সঙ্গে বন্ধুত্বের ফাটল নিয়ে করণের বক্তব্য। কীভাবে ভাঙল রূপকথার মতো বন্ধুত্ব?


 The-reason-that-broke-Kajal-Karan-friendship

প্রযোজক-পরিচালক করণ জোহরের আত্মজীবনী ‘অ্যান আনসুটেবল বয়’ একের পর বোমা ফাটিয়ে চলেছে। সমকামিতার পর আলোচনার ঝড় তুলেছে অভিনেত্রী কাজলের সঙ্গে বন্ধুত্বের ফাটল নিয়ে করণের বক্তব্য। কীভাবে ভাঙল রূপকথার মতো বন্ধুত্ব?

মাস দুয়েক আগের কথা। করণের ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ও কাজলের স্বামী অজয় দেবগণের ‘শিবাই’ একইদিনে মুক্তি নিয়ে ঝামেলা তৈরি হয়। দুই শিবিরে চলতে থাকে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি। অভিযোগ উঠে ‘শিবাই’-এর বিরুদ্ধে নেতিবাচক প্রচারণা চালাতে স্বঘোষিত সিনে সমালোচক কামাল আর খানকে ২৫ লাখ রুপি দিয়েছেন করণ।

শোনা যাচ্ছে, ঠিক এ্ই একটা কারণে দুই সেলিব্রিটির বন্ধুত্ব ভাঙেনি। তবে তা পুরোপুরি খোলাসা করেননি করণ। কাজলও মুখে তালা দিয়েছেন।

‘অ্যান আনসুটেবল বয়’-এ করণ লিখেছেন, ‘আমার আর কাজলের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই। ভেঙে গিয়েছে। এমন কিছু হয়েছে যেটাতে আমি খুব বিরক্ত হয়েছি। কিন্তু সেটা আমি সকলের সামনে বলতে চাই না। বরং আড়ালেই রাখতে চাইব। সেটাই বোধহয় আমার আর কাজলের জন্য ভালো হবে। ২৫ বছর ধরে যে ইমোশন আমার তৈরি হয়েছিল, সব কিছুকে মেরে ফেলেছে।’

তিনি আরা লেখেন, ‘ও আর আমাকে ডিজার্ভ করে না। আড়াই দশক পরে সম্পর্ক ভাঙল কাজল। কখনো আর আমার জীবনে ফিরে আসবে না।’

এমন বক্তব্যে নড়েচড়ে বসেছেন কাজল ও করণের ভক্তরা। এ দুই জুটি শাহরুখ খানকে নিয়ে উপহার দিয়েছেন ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’, ‘কাভি খুশি কাভি গাম’, ‘মাই নেম ইজ খান’-এর মতো সিনেমা। তেমনটা আর ঘটবে না— তারা মানতে পারছেন না।

Post A Comment: