তেলাপোকার দুধ হবে ভবিষ্যতের সুপারফুড তেলাপোকাকে সবাই ঘৃণা করে থাকে। কিন্তু আপনি শুনে হয়তো বিস্মিত হবেন যে, এই তেলাপোকার দুধই হতে পারে ভবিষ্যতের একটি সুপারফুড! আন্তর্জাতিক গবেষকগণসহ ভারতের বেঙ্গালুরুর ইন্সটিটিউট ফর স্টেম সেল বায়োলজি এন্ড রিজেনারেটিভ মেডিসিন (ইনস্টেম) এর গবেষকগণ Diploptera punctata নামক তেলাপোকা থেকে দুধের মত প্রোটিনের ক্রিস্টাল আবিষ্কার করেছেন। এটি ক্যালোরি ও পুষ্টিকর খাবার প্রদান করে।
 Sell-superfood-of-the-future-will-be-milk
 

তেলাপোকাকে সবাই ঘৃণা করে থাকে। কিন্তু আপনি শুনে হয়তো বিস্মিত হবেন যে, এই তেলাপোকার দুধই হতে পারে ভবিষ্যতের একটি সুপারফুড! আন্তর্জাতিক গবেষকগণসহ ভারতের বেঙ্গালুরুর ইন্সটিটিউট ফর স্টেম সেল বায়োলজি এন্ড রিজেনারেটিভ মেডিসিন (ইনস্টেম) এর গবেষকগণ Diploptera punctata  নামক তেলাপোকা থেকে দুধের মত প্রোটিনের ক্রিস্টাল আবিষ্কার করেছেন। এটি ক্যালোরি ও পুষ্টিকর খাবার প্রদান করে।



প্যাসেফিক বিটল ককরোচ তেলাপোকার একমাত্র প্রজাতি যারা তাদের সন্তানদের লালন-পালন করে থাকে। এই প্রজাতির মা তেলাপোকা তার ব্রুড স্যাকের মধ্যে ভ্রূণের পুষ্টির জন্য প্রোটিনের ক্রিস্টাল উৎপন্ন করে।


গবেষকেরা দেখেছেন যে, দুধের এই প্রোটিন উৎপাদনের জিনটি ল্যাবে পুনরায় উৎপন্ন করা সম্ভব। গবেষক সঞ্চারি ব্যানারজি বলেন, ‘এই ক্রিস্টাল বা স্ফটিকগুলো সম্পূর্ণ খাদ্যের মতোই, এর মধ্যে আছে প্রোটিন, চর্বি এবং চিনি। প্রোটিনের অনুক্রম লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে, এতে সবগুলো অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড আছে’।


এর একটি ক্রিস্টালে মহিষের দুধের তিনগুণ বেশি শক্তি থাকে। যদিও মানুষকে সন্তুষ্ট করতে হলে অনেক বেশি জনসংযোগ করতে হবে। বিজ্ঞানী সুব্রামানিয়াম রামাসয়ামি বলেন, ‘আপনার যদি উচ্চ ক্যালোরির খাবার প্রয়োজন হয় তাহলে আপনার সম্পূর্ণ খাদ্য গ্রহণ করা প্রয়োজন’। রামাসয়ামি অনুমান করেন যে, ‘এই স্ফটিকটিই প্রোটিন সাপ্লিমেন্ট হিসেবে ব্যবহার হবে’।


রামাসয়ামি বলেন, এরা খুবই স্থিতিশীল। এরা চমৎকার প্রোটিন সাপ্লিমেন্ট হতে পারে। আন্তর্জাতিক গবেষকগণ এই গবেষণাটিকে অত্যন্ত চিত্তাকর্ষক হিসেবে অভিহিত করেন। এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত – আমেরিকার ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ হেলথ এর সেন্টার ফর এডভাঞ্চিং ট্রাঞ্জিশনাল সায়েন্স, জাপানের হাই এনার্জি এক্সেলারেটর রিসার্চ অর্গানাইজেশন এর স্ট্রাকচারাল বায়োলজি রিসার্চ সেন্টার, ভারতের সেন্টার ফর সেলুলার এন্ড মলিকিউলার প্লাটফরমস (সি-ক্যাম্প), কানাডার টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অফ সেল এন্ড সিস্টেম বায়োলজি, আমেরিকার লোয়া বিশ্ববিদ্যালয় এবং ফ্রান্সের সিঙ্ক্রোট্রোন এসওএলইআইএল  এর এক্সপেরিমেন্টাল ডিভিশন।


গবেষকেরা এই গবেষণাটি প্রকাশ করেন ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অফ ক্রিস্টালোগ্রাফি সাময়িকীতে। গবেষণার শিরোনামটি ছিলো এরকম- ‘জরায়ুজ তেলাপোকা Diploptera punctata  এর ভিভোতে এটমিক রেজুলোশনের মাধ্যমে উৎপন্ন হওয়া প্রোটিনের স্ফটিকটি ভিন্ন ধরণের গ্লাইকোসিলেডেট এবং লিপিডের বন্ধনযুক্ত’।

Post A Comment: