নির্দোষ সালমান! বিপন্ন প্রজাতির কৃষ্ণসার হত্যা ও বেআইনি অস্ত্র সঙ্গে রাখার অভিযোগে বলিউড অভিনেতা সালমানের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় হলো আজ। অস্ত্র আইনে মামলার রায়ে নির্দোষ প্রমাণিত হলেন সালমান। আজ যোধপুর আদালত বেআইনি অস্ত্র মামলায় সালমান দোষী নন বলে জানিয়েছে।
 Salman-is-innocent


বিপন্ন প্রজাতির কৃষ্ণসার হত্যা ও বেআইনি অস্ত্র সঙ্গে রাখার অভিযোগে বলিউড অভিনেতা সালমানের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় হলো আজ। অস্ত্র আইনে মামলার রায়ে নির্দোষ প্রমাণিত হলেন সালমান। আজ যোধপুর আদালত বেআইনি অস্ত্র মামলায় সালমান দোষী নন বলে জানিয়েছে।



সালমান খানের আইনজীবী সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সালমানের কাছে শুধুমাত্র এয়ারগান ছিল, কোনও রকম আগ্নেয়াস্ত্র ছিল না। এই প্রসঙ্গে সালমানের বক্তব্য, তাকে ফাঁসানো হয়েছে এই মামলায়।


১৮ বছর আগে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিং করতে গিয়ে দু’টি কৃষ্ণসার হরিণকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছিল সালমান খান, সাইফ আলি খান, সোনালি বেন্দ্রে, টাবু ও নীলমের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি বেআইনিভাবে অস্ত্র রাখার অভিযোগও ওঠে সালমানের বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যেই বন্যপ্রাণ হত্যা মামলায়, রাজস্থান হাই কোর্ট নির্দোষ ঘোষণা করে সালমানকে। তবে সেই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়েছে রাজস্থান সরকারের পক্ষ থেকে।


কিন্তু বেআইনিভাবে লাইসেন্স-বহির্ভূত অস্ত্র রাখা বিষয়ক মামলাটির আজ শুনানি ছিল যোধপুর কোর্টে। গতকাল সন্ধ্যায় বোন আলভিরার সঙ্গে যোধপুর পৌঁছান সালমান। আজ সকালে আদালতে হাজিরা দেন তিনি। বিচারক তাকে নিয়মমাফিক তার নাম জিজ্ঞাসা করেন। তার পরেই তিনি রায় পড়ে শোনান এবং সেখানে বলা হয় সালমান নির্দোষ। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, তাকে ‘বেনিফিট অব ডাউট’ গ্রাউন্ডে ছেড়ে দেওয়া হয়।




উল্লেখ্য, সালমান এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় এর আগেও গ্রেফতার হয়েছেন। তবে ৫ দিন বাদেই জামিনে মুক্তি পান তিনি। ২০০৬-এর এপ্রিল নিম্ন আদালত সালমানকে বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইনে দোষী সাব্যস্ত করে ৫ বছরের কারাবাস ও ৫ হাজার রুপি জরিমানার নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে তার সাজা স্থগিত হয়ে যাওয়ার আগে ৬দিন জেলে কাটিয়ে ফেলেন সালমান। পরে সালমানের আর্জি মেনে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে যাবতীয় অভিযোগ খারিজ করে দেন হাইকোর্ট।


কৃষ্ণসার ভারতের সংরক্ষিত প্রজাতির প্রাণী। প্রাণী সংরক্ষণ বিভাগ ওই ঘটনার পরেই সালমানের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়। দোষী প্রমাণিত হলে সাত বছরের কারাদণ্ড হতে পারে সালমানের। তবে তিনি বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।


এই মুহূর্তে কবির খানের ‘টিউবলাইট’ ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত আছেন সালমান। সেই সঙ্গে ‘বিগ বস’ উপস্থাপনা করছেন তিনি। এরপর ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবির শুটিং শুরু করার কথা রয়েছে তার।

Post A Comment: