গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার ঘটনায় স্থানীয় জামায়াত নেতা মোজাম্মেল হকসহ (৪৫) আরো ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার ভোরে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।
 Liton-MP-murder-More-arrests-5-suspects


গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার ঘটনায় স্থানীয় জামায়াত নেতা মোজাম্মেল হকসহ (৪৫) আরো ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার ভোরে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

এদের মধ্যে মোজাম্মেল হক উপজেলার কাপাসিয়া ইউনিয়ন জামায়াতের সেক্রেটারী হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করছেন। অপর ৪ জনের পরিচয় জানা যায়নি। এ নিয়ে মোট ৬৫ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

গ্রেফতার মোজাম্মেল হকের রাজনৈতিক পরিচয় নিশ্চিত করতে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও সুন্দরগঞ্জ উপজেলা জামায়াতের আমীর ইউনুস আলীর মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিয়ার রহমান জানান, গ্রেফতার ৫ জনের মধ্যে মোজাম্মেল হক কাপাসিয়া ইউনিয়ন জামায়াতের সেক্রেটারী। বাকিদের পরিচয় তাৎক্ষণিক পাওয়া যায়নি।

ওসি আরো জানান, এমপি লিটন হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তাদের গ্রেফতার করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের আদালতে হাজির করা হবে।

গত ৩১ ডিসেম্বর সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সাহাবাজ গ্রামের নিজ বাড়িতে গুলিবিদ্ধ হন এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৭টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

Post A Comment: