জেনে নিন পায়ের পাতার বিভিন্ন রোগের উপসর্গ পায়ের পাতা আমাদের শরীরের অনেক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলেও অবহেলিতই থাকে বেশীরভাগ সময়। পায়ের পাতার উপর আমাদের সমস্ত শরীরের ভর দিয়ে আমরা দাড়াই এবং হাঁটি। তাই শরীরের এই অংশে কোন সমস্যা দেখা দিলে তা আমাদের শারীরিক অসুবিধা সৃষ্টির পাশাপাশি দৈনন্দিন বিভিন্ন কাজেও সমস্যার সৃষ্টি করে। তাই পায়ের পাতার যত্ন নেয়া প্রয়োজন। পায়ের পাতায় হতে পারে বিভিন্ন ধরণের সমস্যা। পায়ের পাতার বিভিন্ন ধরণের সমস্যার লক্ষণগুলোর বিষয়ে জানলে আপনি শনাক্ত করতে পারবেন আপনার পায়ের পাতায় কী সমস্যা হয়েছে এবং সেই অনুযায়ী এর প্রতিকারের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন। পায়ের পাতার সমস্যাগুলো এবং এর সমাধানের উপায় সম্পর্কে চিকিৎসকের দেয়া পরামর্শ জানবো এই ফিচারে।


Know-the-symptoms-of-various-diseases-of-the-feet

পায়ের পাতা আমাদের শরীরের অনেক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলেও অবহেলিতই থাকে বেশীরভাগ সময়। পায়ের পাতার উপর আমাদের সমস্ত শরীরের ভর দিয়ে আমরা দাড়াই এবং হাঁটি। তাই শরীরের এই অংশে কোন সমস্যা দেখা দিলে তা আমাদের শারীরিক অসুবিধা সৃষ্টির পাশাপাশি দৈনন্দিন বিভিন্ন কাজেও সমস্যার সৃষ্টি করে। তাই পায়ের পাতার যত্ন নেয়া প্রয়োজন। পায়ের পাতায় হতে পারে বিভিন্ন ধরণের সমস্যা। পায়ের পাতার বিভিন্ন ধরণের সমস্যার লক্ষণগুলোর বিষয়ে জানলে আপনি শনাক্ত করতে পারবেন আপনার পায়ের পাতায় কী সমস্যা হয়েছে এবং সেই অনুযায়ী এর প্রতিকারের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন। পায়ের পাতার সমস্যাগুলো এবং এর সমাধানের উপায় সম্পর্কে চিকিৎসকের দেয়া  পরামর্শ জানবো এই ফিচারে।


  
১। অ্যাথলিট'স ফুট
অ্যাথলিট'স ফুট হলে পায়ের পাতার নীচের অংশের চামড়া শুষ্ক হয়ে উঠে যায়। পায়ের পাতার ঐ অংশে তরলেপূর্ণ ফোস্কা থাকে এবং প্রচন্ড চুলকানি হয়। কুসুম গরম পানিতে পা ভিজিয়ে রাখলে চুলকানি কমে। তবে এই সমস্যা মোকাবেলার জন্য একজন চিকিৎসকের পরামর্শে ছত্রাকরোধী ঔষধ সেবন করতে হবে।

২। গেঁটেবাত
কোন আঘাত ছাড়াই যখন পায়ের বুড়ো আঙ্গুলটি ফুলে যায়, লাল হয়ে যায় এবং গরম অনুভব হয় তখন গেঁটে বাত হয়েছে বুঝে নিতে হবে। এই সমস্যাটির জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। কুসুম গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে পা ভিজিয়ে রাখলে উপকার পাবেন।

৩। হ্যামার টো
পায়ের দ্বিতীয়, তৃতীয় অথবা চতুর্থ আঙ্গুলগুলোর বিকৃতিকে হ্যামার টো বলে। এক্ষেত্রে এই আঙ্গুলগুলোর মাঝামাঝি অংশ বেঁকে যায় বলে দেখতে অনেকটা হাতুড়ির মত মনে হয়। জয়েন্টের মধ্যে সিলিকন প্যাড লাগিয়ে এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। কিন্তু যদি সময়মত চিকিৎসা করা না হয় বা বিলম্ব হয়ে যায় তাহলে অপারেশনের প্রয়োজন হতে পারে।

৪। বুনিয়ন   
পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলের বাহিরের দিকের হাড়টি যখন ফুলে বের হয়ে আসে তখন থাকে বুনিয়ন বলে। বৃদ্ধাঙ্গুল এবং দ্বিতীয় আঙ্গুলের মধ্যের সংঘর্ষ এড়ানোর সহজ উপায় হচ্ছে জন্য টো স্পেসার ব্যবহার করা। যদি বুনিয়নে ব্যথা হয় এবং আঙ্গুল নাড়াতে সমস্যা হয় তাহলে চিকিৎসক অপারেশনের পরামর্শ দেবেন।

৫। নখকুনি
পায়ের আঙ্গুলের নখের বর্ধিত অংশ যখন নখের পাশের ত্বকের ভেতরে প্রবেশ করে তখন নখকুনি হয়েছে বলা হয়। এতে আঙ্গুল ফুলে যেতে পারে এবং ব্যথা হয়। এটা সাধারণত বৃদ্ধাঙ্গুলিতেই হয়ে থাকে বেশি। কুসুম গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রাখলে নখকুনির সমস্যায় আরাম পাওয়া যায় এবং ব্যথাও কমে।

৬। প্ল্যানটার ওয়ার্টস
পায়ের পাতার নীচের অংশে যদি দানাদার কালো বিন্দুর মত বৃদ্ধি হতে দেখেন তাহলে বুঝতে হবে যে আপনার প্ল্যানটার ওয়ার্টস হয়েছে। পায়ের পাতার নীচের যে অংশে অনেক বেশি চাপ পড়ে সেখানের ত্বক শক্ত ও মোটা হয়ে প্ল্যানটার ওয়ার্টস সৃষ্টি করে। হিউম্যান পেপিলোমা ভাইরাসের কারণে হয় প্ল্যানটার ওয়ার্টস

Post A Comment: