শিল্পী, সাংবাদিক, কবি ও সাংস্কৃতিক কর্মী সঞ্জীব চৌধুরী উৎসর্গ করে ১১ বছর পর আবারও Concert For Fighters। ১২ জানুয়ারি ২০১৭ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু স্মারক ভাস্কর্য চত্বরে দুপুর ২.০০ টা থেকে রাত ১১.০০টা পর্যন্ত চলবে এই কনসার্ট। এর আগে ১৯ নভেম্বর ২০১৬ টিএসসি থেকে শুরু হয়ে গত দুই মাস ধরে Road to Concert for Fighters শিরোনামে ধারাবাহিকভাবে ট্যুরিং কনসার্ট হয়েছে চুয়েট, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও সিলেটে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ধানমন্ডি রবীন্দ্র সরোবরে। ২০০৫ সালে প্রথমবার অনুষ্ঠিত Concert For Fighters এর মতো এইবারও আয়োজনের উদ্যোগ ও অংশগ্রহণে থাকছেন ঢাকা ও ঢাকার বাইরের শিল্পী ও সংগঠকরা। এরই মধ্যে কনসার্টে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন মাকসুদ ও ঢাকা, কফিল আহমেদ, পথিক নবী, কৃষ্ণকলি, মেঘদল, সহজিয়া, মাদল,শহরতলী, সমগীত, চিৎকার, মনোসরণি, লীলা, গানপোকা এবং আদিবাসী মেয়েদের ব্যান্ড F-Minor। বরাবরের মতই কোন অ্যাড বা স্পন্সর রাখা হচ্ছে না। টি-শার্ট,স্টিকার ও পোস্টার বিক্রি আর গান গেয়ে চলছে অর্থ সংগ্রহ। সংগৃহীত অর্থের একটি অংশ প্রদান করা হবে গোবিন্দ গঞ্জের নির্যাতিত সাঁওতাল আদিবাসী সম্প্রদায়কে। শিল্প-সংস্কৃতির চর্চা এবং গান শুধুমাত্র একটি বিকল্প পেশা নয়,একটি প্রতিশ্রুতির নাম যার মর্মমূলে রয়েছে ব্যক্তি-সমাজ-মানুষ-প্রকৃতির প্রতি গভীর ভালোবাসা। মূলত এই প্রতিশ্রুতিকে আরো বেশি শক্তিশালী করতে এই আয়োজন। বিজ্ঞাপন আর বেচা-কেনার এই সময়ে Concert For Fighters এর উদ্যোগ ও অংশগ্রহণ সম্পূর্ণরুপে স্বতঃস্ফূর্ত।

 শিল্পী, সাংবাদিক, কবি ও সাংস্কৃতিক কর্মী সঞ্জীব চৌধুরী উৎসর্গ করে ১১ বছর পর আবারও Concert For Fighters।   ১২ জানুয়ারি ২০১৭ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু স্মারক ভাস্কর্য চত্বরে দুপুর ২.০০ টা থেকে রাত ১১.০০টা পর্যন্ত চলবে এই কনসার্ট।


এর আগে ১৯ নভেম্বর ২০১৬ টিএসসি থেকে শুরু হয়ে গত দুই মাস ধরে Road to Concert for Fighters শিরোনামে ধারাবাহিকভাবে ট্যুরিং কনসার্ট হয়েছে চুয়েট, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও সিলেটে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ধানমন্ডি রবীন্দ্র সরোবরে। ২০০৫ সালে প্রথমবার অনুষ্ঠিত Concert For Fighters এর মতো এইবারও আয়োজনের উদ্যোগ ও অংশগ্রহণে থাকছেন ঢাকা ও ঢাকার বাইরের শিল্পী ও সংগঠকরা।


এরই মধ্যে কনসার্টে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন মাকসুদ ও ঢাকা, কফিল আহমেদ, পথিক নবী, কৃষ্ণকলি, মেঘদল, সহজিয়া, মাদল,শহরতলী, সমগীত, চিৎকার, মনোসরণি, লীলা, গানপোকা এবং আদিবাসী মেয়েদের ব্যান্ড F-Minor। বরাবরের মতই কোন অ্যাড বা স্পন্সর রাখা হচ্ছে না। টি-শার্ট,স্টিকার ও পোস্টার বিক্রি আর গান গেয়ে চলছে অর্থ সংগ্রহ। সংগৃহীত অর্থের একটি অংশ প্রদান করা হবে গোবিন্দ গঞ্জের নির্যাতিত সাঁওতাল আদিবাসী সম্প্রদায়কে।


শিল্প-সংস্কৃতির চর্চা এবং গান শুধুমাত্র একটি বিকল্প পেশা নয়,একটি প্রতিশ্রুতির নাম যার মর্মমূলে রয়েছে ব্যক্তি-সমাজ-মানুষ-প্রকৃতির প্রতি গভীর ভালোবাসা। মূলত এই প্রতিশ্রুতিকে আরো বেশি শক্তিশালী করতে এই আয়োজন। বিজ্ঞাপন আর বেচা-কেনার এই সময়ে Concert For Fighters এর উদ্যোগ ও অংশগ্রহণ সম্পূর্ণরুপে স্বতঃস্ফূর্ত।

Post A Comment: