একজন বিতর্কিত কবির জীবনী নিয়ে নির্মিত হতে যাওয়া চলচ্চিত্র থেকে সড়ে দাঁড়ানোর কথা জানিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী বিদ্যা বালান। দাপুটে অভিনেত্রীর ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো ঘটল এই ঘটনা। ডানপন্থী চাপের কারণে বলিউডের তারকার এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে।
 Amy-and-stood-Aside-from-learning


একজন বিতর্কিত কবির জীবনী নিয়ে নির্মিত হতে যাওয়া চলচ্চিত্র থেকে সড়ে দাঁড়ানোর কথা জানিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী বিদ্যা বালান।

দাপুটে অভিনেত্রীর ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো ঘটল এই ঘটনা। ডানপন্থী চাপের কারণে বলিউডের তারকার এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে।

হিন্দুস্তান টাইমস বলছে, বিতর্কিত কবি কমলা দাসের জীবনী নিয়ে বায়োপিক 'অ্যামি'তে কাজ করার কথা ছিল বিদ্যা বালনের। কিন্তু সে ছবি থেকে সরে দাঁড়ালেন অভিনেত্রী।

সূত্রের খবর দিয়ে ভারতীয় একাধিক গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ডানপন্থী চাপের মুখে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিদ্যা। তবে সেকথা স্বীকার করেননি তিনি।

কাহানি তারকার দাবি, ছবির চিত্রনাট্যের কিছু বিষয় নিয়ে তিনি পরিচালকের সঙ্গে সহমত হচ্ছিলেন না, তাই সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত।

জীবনকালে বহু সাহসী পদক্ষেপের কারণে অনেকবার বিতর্কিত হয়েছেন কবি কমলা দাস। তার কাজ, তার সৃষ্টির মধ্যে সেসব কিছুর ছাপও রেখে গেছেন।

২০০৯ সালে মৃত্যুর দিন কয়েক আগে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন কমলা দাস। তারপর নিজের নাম পরিবর্তন করে রাখেন কমলা সুরায়া।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, সেই বিতর্কিত মানুষের চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল বিদ্যার। কিন্তু শিবসেনার চাপের মুখে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়ান অভিনেত্রী।

তবে বিদ্যার ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো বলছে, অভিনেত্রী এবং পরিচালক কমলাউদ্দীন মহম্মদের মধ্যে ভাবনার অমিল হওয়ায়, বিদ্যা কাজ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

পরিচালক কমলাউদ্দীন বলেন, প্রথম পর্যায়ে 'অ্যামি' নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত ছিলেন বিদ্যা। কিন্তু অসুবিধার কথা বলে দুইবার শুটিং পেছানোর কথা বলেন তিনি।

ওই সিনেমায় এখন আর বিদ্যা অভিনয় করবেন না বলে তার মুখপাত্র নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে অবশ্য শোনা গিয়েছিল 'অ্যামি' নিয়ে মারাত্মক উত্তেজিত বিদ্যা। মালায়ালাম এই ছবি নিয়ে পড়াশোনাও শুরু করেছিলেন অভিনেত্রী।

Post A Comment: