টকমিষ্টি মুলা উপকরণ: মুরগির মিহি কিমা ১ কাপ, মোটা চাকা করে কাটা মুলা ১ কাপ, ডিম ১টি, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি আধা টেবিল চামচ, সয়াসস ১ চা-চামচ, তেল পরিমাণমতো, চিলিসস ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৪টি, আদা বাটা আধা চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ, পাপরিকা ১ চা-চামচ ও চিনি ১ চিমটি।



টকমিষ্টি মুলা
উপকরণ: মুরগির মিহি কিমা ১ কাপ, মোটা চাকা করে কাটা মুলা ১ কাপ, ডিম ১টি, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি আধা টেবিল চামচ, সয়াসস ১ চা-চামচ, তেল পরিমাণমতো, চিলিসস ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৪টি, আদা বাটা আধা চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ, পাপরিকা ১ চা-চামচ ও চিনি ১ চিমটি।


প্রণালি: প্রথমে কিমায় ডিম, লবণ, আদা বাটা, গোলমরিচ গুঁড়া, পাপরিকা ও অল্প কর্নফ্লাওয়ার মেখে ম্যারিনেট করে নিন। মুলা মাঝখান থেকে ছোট গোল করে কেটে লবণ মেখে নিন। মুলার এই গোল মুখে অল্প কর্নফ্লাওয়ার মেখে নিয়ে মাঝে কিমার পুর ভরে অল্প তেলে শ্যালো ফ্রাই করে নিয়ে ১০ মিনিটের জন্য ভাপে দিন। গরম তেলে রসুন কুচি ভেজে তাতে পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ দিয়ে নেড়ে সয়াসস, চিলিসস দিয়ে আবার কিছুক্ষণ নেড়ে এর মধ্যে চিনি, লেবুর রস ছড়িয়ে ভাপ দেওয়া মুলাগুলো দিয়ে নামিয়ে নিন। এবার গরম গরম পোলাও বা ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।


সাদা লাল সবজি

মুলার চাটনি
উপকরণ: মুলা মিহি কুচি আধা কাপ, কারি পাতা ১ টেবিল চামচ, জলপাই তেল ২ টেবিল চামচ, আস্ত সরষে আধা চা-চামচ, আস্ত জিরা সিকি চা-চামচেরও কম, আস্ত ধনে সিকি চা-চামচের কম, শুকনা মরিচ ১০ থেকে ১২টি, লবণ ১ চা-চামচ (স্বাদমতো) ও তেঁতুলের ক্বাথ ২ টেবিল চামচ।


প্রণালি: মাঝারি আঁচে তেল গরম করে সরষে, জিরা, ধনে ও শুকনা মরিচ ফোড়ন দিন। মিনিট দুয়েক ভেজে এতে কারি পাতা মিশিয়ে নিন। নামিয়ে বেটে ফেলুন। অল্প তেলে মুলা কুচি ভেজে নিয়ে লবণ ও তেঁতুল মেশান। নামিয়ে বেটে নিন। এর মধ্যে পরিমাণমতো মরিচ বাটা মিশিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।


রেড রাইস
উপকরণ: পোলাওর চাল ৩ কাপ, গাজর কুচি ২ টেবিল চামচ, বিট রুট কুচি ১ কাপ, দুই রঙের ক্যাপসিকাম কুচি ২ টেবিল চামচ, মটরশুটি ১ টেবিল চামচ, বাদাম ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, নারকেল কুচি পৌনে ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৫-৬টি, চিনি ২ চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, মাখন ১০০ গ্রাম, লবণ পরিমাণমতো, লাইট সয়াসস ২ টেবিল চামচ, ডিম ২টি, চিকেন ভেজিটেবল কিউব ২টি, আদা কুচি ১ টেবিল চামচ ও রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ।


প্রণালি: চাল লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে ঝরঝরে ভাত রান্না করে নিতে হবে। একটি ছড়ানো পাত্রে মাখন গলিয়ে পেঁয়াজ, রসুন ও আদা দিয়ে নাড়তে হবে। তার মধ্যে ডিম ফেটে এমনভাবে নাড়তে হবে, যেন ডিম জমে ছানা ছানা হয়ে যায়। এবার গাজর, মটরশুটি, গোলমরিচ গুঁড়া, বাদাম, নারকেল কুচি, বিট রুট কুচি ও চিকেন কিউব দিয়ে নেড়ে কষিয়ে নিন। এবার তাতে রান্না করা ভাত ও অল্প সয়াসস দিয়ে নাড়তে হবে। সব শেষে দুই রঙের ক্যাপসিকাম দিয়ে নেড়ে লবণ চেখে অল্প পানি দিয়ে প্রেশার কুকারে বসিয়ে ১টি সিটি দিয়ে নামিয়ে নিন।


বিট রুটে মুরগি কারি
উপকরণ: দেশি মুরগি ১টি (মাঝারি টুকরা করা), পেঁয়াজ বাটা ১ চা-চামচ, আদা-রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ৩টি, হলুদ গুঁড়া পরিমাণমতো, মরিচ গুঁড়া দেড় চা-চামচ, টমেটো কুচি ২ টেবিল চামচ, বিট রুট বাটা ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ৪টি, ১ টুকরা লেবুর রস, সয়াবিন তেল পরিমাণমতো ও লবণ স্বাদমতো।


প্রণালি: একটি পাত্রে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ দিয়ে ভাজুন। পেঁয়াজ বাদামি হলে সব মসলা দিয়ে কষিয়ে নিন। তারপর টমেটো দিয়ে আরেকটু কষিয়ে মাংস দিন। মুরগিটা ভালো করে কষানো হলে কাঁচা মরিচ দিন। এবার বিট রুট বাটা দিয়ে ২ থেকে ৩ মিনিট কষান। অল্প ফোটানো পানি দিয়ে ঢেকে প্রেশার কুকারে ৩ থেকে ৪টি সিটি দিয়ে নামান। এরপর কিছুক্ষণ চুলায় রেখে মাখা মাখা হলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।


রেড ভেলভেট কেক
উপকরণ: ডিম ২টি, চিনি ২ থেকে ৩ কাপ, তেল ২ থেকে ৩ কাপ, ময়দা আধা কাপ, গুঁড়া দুধ ২ চা-চামচ, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ, বিট ব্লেন্ড করা ১ চা-চামচ, ভ্যানিলা এসেন্স আধা চা-চামচ, ভিনেগার ১ চা-চামচ ও বেকিং সোডা ১ চিমটি।


প্রণালি: ডিমের সাদা অংশ ভালো করে ফেটে তাতে চিনি ও তেল দিয়ে বিট করুন। বিট হয়ে গেলে তার মধ্যে ময়দা, গুঁড়া দুধ, বেকিং পাউডার, ব্লেন্ড করা বিট ও ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে ভালোমতো মেশান। কেকের পাত্রে তেল মাখিয়ে (ব্রাশ করা) রাখুন। একটি কাপে ভিনেগার নিয়ে তাতে বেকিং সোডা দিন। ফেনা উঠে গেলে ভিনেগারটুকু কেকের মিশ্রণে দিন। ভালো করে মেশান। পুরো মিশ্রণ কেকের পাত্রে ঢেলে ওভেনে ১৫০ ডিগ্রিতে ৪০ মিনিট বেক করুন। ওভেন থেকে বের করে ঠান্ডা করুন। একইভাবে আরও একটা কেক বানিয়ে ঠান্ডা হলে গুঁড়া করে রাখুন। বাটার ভালো করে বিট করে নিন। এরপর এতে বাকি সব উপকরণ মিশিয়ে ক্রিম না হওয়া পর্যন্ত বিট করতে থাকুন। কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে বের করুন। কেক মাঝখান থেকে কেটে ক্রিম লাগিয়ে নিন। এরপর চারপাশে ভালো করে ক্রিম লাগিয়ে নিন। কেকের গুঁড়া দিয়ে পুরোটা কেক ঢেকে দিন। ইচ্ছেমতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।


বাটার ক্রিম
উপকরণ: ৪টি ডিমের সাদা অংশ (ঘরের তাপমাত্রায়), চিনি চায়ের কাপের আধা কাপ ও রুম তাপমাত্রায় রাখা বাটার ২০০ গ্রাম।


প্রণালি: প্রথমে একটি পাত্রে অর্ধেক পরিমাণ পানি দিয়ে চুলায় বসান। বলক এলে চুলার আঁচ মধ্যম করে দিন। এখন আরেকটি পাত্রে ডিমের সাদা অংশ ও চিনি মিশিয়ে বলক ওঠা পাত্রের ওপর বসিয়ে অনবরত নাড়তে থাকুন চিনি গলে ডিমের সঙ্গে মেশার আগ পর্যন্ত। ১ থেকে ২ মিনিট পর ডিম-চিনির মিশ্রণটি নামিয়ে ইলেকট্রিক বিটার দিয়ে বিট করুন ফোম তৈরি হওয়া পর্যন্ত। 

ফোম হয়ে গেলে পাত্রের তলায় হাত দিয়ে পরীক্ষা করুন পাত্রটি গরম কি না। ঠান্ডা না হওয়া পর্যন্ত বিট করুন। পাত্রটি ঠান্ডা হয়ে গেলে কিউব করে কাটা বাটারের ১টি করে কিউব ফোমের মধ্যে দিন আর বিট করুন। এভাবে সবগুলো বাটার দিয়ে দেওয়া হলে আরও কিছুক্ষণ বিট করলে তৈরি হবে বাটার ক্রিম। এই ক্রিম গলবে না। ডিম ও চিনি বলক ওঠা পাত্রের ওপর দেওয়ার পর অনবরত নাড়তে হবে। নইলে ডিম দলা দলা হয়ে যাবে। ডিম ফোম করার পর অবশ্যই পাত্রটি ঠান্ডা হওয়ার পর বাটার দেবেন। নইলে ক্রিম হবে না।

Post A Comment: