ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে কিছুটা লজ্জাজনক ভাবেই হেরেছে পাকিস্তান। প্রথম পাকিস্তানি অধিনায়ক হিসেবে মিসবাহ-উল-হকের ৫০তম টেস্টটা তাই খুব একটা সুখকর হলো না। টেস্টটা শেষ না হতেই আরও একটা দুঃসংবাদ শুনলেন মিসবাহ। আজই তাঁর শ্বশুর মারা গেছেন পাকিস্তানে। সিরিজের মাঝপথেই তাই অধিনায়ককে ফিরে যেতে হচ্ছে দেশে, খেলতে পারবেন না হ্যামিল্টনে হতে যাওয়া দ্বিতীয় টেস্টে।



ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে কিছুটা লজ্জাজনক ভাবেই হেরেছে পাকিস্তান। প্রথম পাকিস্তানি অধিনায়ক হিসেবে মিসবাহ-উল-হকের ৫০তম টেস্টটা তাই খুব একটা সুখকর হলো না। টেস্টটা শেষ না হতেই আরও একটা দুঃসংবাদ শুনলেন মিসবাহ। আজই তাঁর শ্বশুর মারা গেছেন পাকিস্তানে। সিরিজের মাঝপথেই তাই অধিনায়ককে ফিরে যেতে হচ্ছে দেশে, খেলতে পারবেন না হ্যামিল্টনে হতে যাওয়া দ্বিতীয় টেস্টে।


বেশ কয়েক দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন মিসবাহর শ্বশুর। আজ সকালে মিসবাহর স্ত্রী উজমা-উল-হক টুইট করে জানান, ‘আমার বাবা মারা গেছেন একটু আগে। আমি আর মিসবাহ পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছি।’


এর কিছুক্ষণ পরই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডও জানায়, ২৫ নভেম্বর থেকে হতে যাওয়া হ্যামিল্টন টেস্টে মিসবাহর বদলে নেতৃত্ব দেবেন আজহার আলী। ২০১০ সালে পাকিস্তানের অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর এ নিয়ে মাত্র দুটি টেস্ট মিস করতে যাচ্ছে মিসবাহ। তাঁর অভাব পূরণ করা কঠিন হবে বলেই মনে করেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া আজহার, ‘তিনি পুরো বছরই দুর্দান্ত খেলেছেন। এ সময় তাঁর না থাকাটা আমাদের জন্য বিশাল ক্ষতি। আমরা তাঁর অভাব বোধ করব। তবে এটাই বাস্তবতা এবং আমাদের এর সঙ্গেই মানিয়ে নিতে হবে।’ 

Post A Comment: