টেস্টটা শুরু হতে আর ২৪ ঘণ্টাও বাকি নেই। দুই দলও টেস্টের ভেন্যু রাজকোটে চলে এসেছে। অথচ ইংল্যান্ড আর ভারতের সিরিজের প্রথম টেস্টটি পড়ে গিয়েছিল শঙ্কায়। প্রশ্নও উঠছিল—শেষ পর্যন্ত হবে তো টেস্ট! আদালত তাদের খরচের ওপর নিষেধাজ্ঞা না ওঠালে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) যে রাজকোট টেস্টটি বাতিল করে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছিল।



টেস্টটা শুরু হতে আর ২৪ ঘণ্টাও বাকি নেই। দুই দলও টেস্টের ভেন্যু রাজকোটে চলে এসেছে। অথচ ইংল্যান্ড আর ভারতের সিরিজের প্রথম টেস্টটি পড়ে গিয়েছিল শঙ্কায়। প্রশ্নও উঠছিল—শেষ পর্যন্ত হবে তো টেস্ট! আদালত তাদের খরচের ওপর নিষেধাজ্ঞা না ওঠালে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) যে রাজকোট টেস্টটি বাতিল করে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছিল।


তবে আদালতের এক নির্দেশে সব শঙ্কা কেটে গেছে। প্রথম টেস্ট পরিচালনার জন্য বিসিসিআইকে প্রায় ৫৯ লাখ রুপি খরচ করার অনুমতি দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। শুধু এই ম্যাচই নয়, ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সিরিজের যতগুলো টেস্ট হবে, সবগুলোতেই সমপরিমান অর্থ খরচের অনুমতি পাচ্ছে বিসিসিআই।


ঝামেলাটা বেঁধেছিল, কারণ আদালতের নির্দেশের কারণে বিসিসিআই তহবিল আপাতত জব্দ হয়ে আছে। কয়েক মাস ধরেই লোধা কমিটির নির্দেশনা পালন করা না-করা নিয়ে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে ঝামেলা চলছে। সুপ্রিম কোর্ট নিয়োজিত এই কমিটি বিসিসিআইয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি আনতে কিছু সংশোধনের সুপারিশ করেছিল। সেই সুপারিশের ভিত্তিতে গত মাসে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট কিছু নির্দেশ দিয়েছেন। যার মধ্যে একটি—টেস্ট যেখানে হবে, সেখানকার রাজ্য বোর্ডকে টাকা দেওয়ার আগে আদালত নিয়োজিত একটি বিশেষ প্যানেলের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে বিসিসিআইকে।


এ নিয়ে ঝামেলায় ভারত সফরে আসা ইংল্যান্ড দলের থাকা-খাওয়ার খরচ দিতে পারছিল না বিশ্বের সবচেয়ে ধনী বোর্ডটি। এমনকি ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে (ইসিবি) অনুরোধও করেছিল খরচ পাঠিয়ে দেওয়ার। আর আজ সারা দিন ধরে বিসিসিআই খবরে এসেছে আগামীকাল শুরু হতে যাওয়া ম্যাচের খরচ নিয়ে ভাবনায়। দুপুর পর্যন্তও আদালত নির্দেশিত বিশেষ কমিটির কাছ থেকে খরচ করার অনুমতি পায়নি বিসিসিআই।


টেস্ট সামনে রেখেই আজ সুপ্রিম কোর্টের কাছে অর্থ ছাড় দেওয়ার ব্যাপারে পিটিশন করে বিসিসিআই। সেখানে লেখা ছিল, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত বোর্ডের জন্য অর্থ ছাড় না দেওয়া হচ্ছে, ইংল্যান্ড ও ভারতের মধ্যে টেস্ট ততক্ষণ হচ্ছে না।’
পিটিশনের শুনানি শেষেই বিসিসিআইকে রাজকোট ম্যাচের জন্য প্রয়োজনীয় ৫৮ লাখ ৬৬ হাজার রুপি খরচ করার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। শুধু এই ম্যাচই নয়, ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাঁচ টেস্টের এই সিরিজের যতগুলো ম্যাচ হবে, সবগুলোর জন্য সমপরিমান অর্থ খরচ করার অনুমতি পাচ্ছে বিসিসিআই।


এর আগে গত মাসে নিউজিল্যান্ড সিরিজের সময়ও এমন অর্থ নিয়ে ঝামেলায় পড়েছিল বিসিসিআই। যদিও শেষ পর্যন্ত তিন টেস্টের সেই সিরিজ ঠিকঠাকই শেষ হয়েছে। এবার এই সিরিজ নিয়েও শঙ্কা দেখা দিলেও আপাতত ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিশ্চিন্ত থাকতে পারছেন ভারত ও ইংল্যান্ডের ক্রিকেট সমর্থকেরা। 

Post A Comment: