শরীরের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গ নিয়ে আমরা সবাই সচেতন। এসবের গঠন ঠিক রাখতে এবং সুস্থ রাখার জন্য চাই বিশেষ যত্ন। অনেকের দেখা যায় হাঁটুর ওপরের অংশ মোটা অথবা হাঁটুর নিচের অংশ মোটা। পায়ের গঠন ঠিক রাখার জন্য দরকার বিভিন্ন যত্ন, ব্যায়াম ও ডায়েট।



শরীরের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গ নিয়ে আমরা সবাই সচেতন। এসবের গঠন ঠিক রাখতে এবং সুস্থ রাখার জন্য চাই বিশেষ যত্ন। অনেকের দেখা যায় হাঁটুর ওপরের অংশ মোটা অথবা হাঁটুর নিচের অংশ মোটা। পায়ের গঠন ঠিক রাখার জন্য দরকার বিভিন্ন যত্ন, ব্যায়াম ও ডায়েট।


এ ব্যাপারে পারসোনা হেলথ কেয়ারের প্রধান প্রশিক্ষক ফারজানা খানম বলেন, ‘পায়ের গঠন ঠিক রাখতে কিছু ব্যায়ামের পাশাপাশি আরও কিছু কাজ করতে হবে। পায়ের গঠন ঠিক রাখতে নিয়মিত হাঁটতে হবে। এ ছাড়া বাইকিং, সাইক্লিং ইত্যাদি করা যেতে পারে। সবচেয়ে বেশি কার্যকর ব্যায়ামের মধ্যে রয়েছে স্কোয়াড ও লন্ডেস। দৈনিক কিছু সময় হাঁটার পাশাপাশি এসব ব্যায়াম অনেক কাজে দেয়।


পায়ে ১ কেজি অথবা ২ কেজির অ্যাঙ্কেল রেড বেঁধে এক্সারসাইজ করা যেতে পারে। অ্যাঙ্কেল রেড অন্য যেকোনো এক্সারসাইজের চেয়ে দ্বিগুণ কার্যকর। এ ছাড়া দড়িলাফ, স্কিপিং, জগিংও বেশ কার্যকর।


দ্বিতীয় পর্যায়ে চর্বি বার্ন হওয়ার পরে টোনিংয়ের কাজ হয়। এ পর্যায়ে প্রশিক্ষকের কাছ থেকে নির্দেশনা নিয়ে লেগ প্রেস, লেগ কার্ল এবং লেগ এক্সটেনশন নামক মেশিন ব্যবহার করা যেতে পারে।
ঘরে বসে যেসব নিয়ম অনুসরণ করা যেতে পারে তা হলো যোগাসনের মাধ্যমে ব্যায়াম। যেমন ঘরে বসে জানু শিরাসোন, উৎকট আসন এবং বজ্রাসন করা যেতে পারে।

১২ বার করার পর প্রথম ধাপ শেষ হলে কিছুটা বিশ্রাম নিয়ে আবার শুরু করতে হবে। হাঁটার সময় সব সময় মেরুদণ্ড সোজা রেখে হাঁটতে হবে। পায়ের আঙুলের দিকে নজর রাখতে হবে, গোড়ালিতে চাপ প্রয়োগ করা যাবে না। এসব নির্দেশাবলি মানার সঙ্গে খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রেও ডায়েট মেনে চলতে হবে।

Post A Comment: