মাশরুম পোলাও উপকরণ: বাসমতী চাল ৩ কাপ, বাটন মাশরুম ২ কাপ (পাতলা করে কেটে নেওয়া), পেঁয়াজ ২টা (বড় আকারের, মিহি করে কুচি), রসুন বাটা আধা চা-চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, নারকেলের দুধ ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি (আস্ত), গরমমসলা এলাচি, লবঙ্গ ও দারুচিনি প্রতিটি ২টি করে (আস্ত), তেজপাতা ২টি, লবণ স্বাদমতো, ঘি আধা কাপ।



মাশরুম পোলাও
উপকরণ: বাসমতী চাল ৩ কাপ, বাটন মাশরুম ২ কাপ (পাতলা করে কেটে নেওয়া), পেঁয়াজ ২টা (বড় আকারের, মিহি করে কুচি), রসুন বাটা আধা চা-চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, নারকেলের দুধ ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৪-৫টি (আস্ত), গরমমসলা এলাচি, লবঙ্গ ও দারুচিনি প্রতিটি ২টি করে (আস্ত), তেজপাতা ২টি, লবণ স্বাদমতো, ঘি আধা কাপ।


প্রণালি: চাল ধুয়ে আধা ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে তারপর পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে। প্যানে অল্প ঘি দিয়ে পেঁয়াজ হালকা করে ভেজে অর্ধেকটা আদা ও রসুন বাটা দিয়ে ২ থেকে ৩ মিনিট কষিয়ে নিন। এতে মাশরুম দিয়ে দিতে হবে। ৩ থেকে ৪ মিনিট ভেজে তারপর লবণ আর নারকেলের দুধ দিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে রান্না করে মাখামাখা হলে নামিয়ে নিন। অপর একটি প্যানে বাকি ঘি গরম করে পেঁয়াজ বেরেস্তা করে তুলে নিতে হবে। তারপর গরমমসলা আর তেজপাতা দিয়ে ১ মিনিট ভেজে চাল আর বাকি আদা বাটা দিয়ে দিতে হবে। ২ থেকে ৩ মিনিট চাল ভেজে পরিমাণমতো ফুটন্ত পানি আর লবণ দিয়ে ঢেকে দিন। পানি আর চাল সমান সমান হয়ে এলে কাঁচা মরিচ আর রান্না করে রাখা মাশরুম দিয়ে হালকা হাতে মিশিয়ে নিয়ে পাত্রের নিচে তাওয়া দিয়ে দমে বসাতে হবে। ১৫-২০ মিনিট দমে রাখলেই পোলাও তৈরি। ওপরে বেরেস্তা ছড়িয়ে গরম-গরম পরিবেশন করুন।


মাশরুম সাশলিক
উপকরণ: বাটন মাশরুম ১২টি, পেঁয়াজ ২টি (বড়), হলুদ ক্যাপসিকাম ১টি, সবুজ ক্যাপসিকাম ১টি, গাজর ১টি, আদা বাটা আধা চা-চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, চিলি সস ১ টেবিল চামচ, সাশলিক স্টিক প্রয়োজনমতো, লবণ স্বাদমতো, তেল ২ টেবিল চামচ।


প্রণালি: সাশলিক স্টিক পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে কমপক্ষে ১ ঘণ্টা। মাশরুমে আদা-রসুন বাটা, মরিচ গুঁড়া আর চিলি সস দিয়ে মেখে ১০ মিনিট রেখে দিতে হবে। পেঁয়াজ চার ফালি করে কেটে পরতে পরতে খুলে রাখতে হবে। গাজর খোসা ছাড়িয়ে পাতলা গোল করে কেটে নিতে হবে। ক্যাপসিকামগুলো বীজ ফেলে কিউব করে কেটে নিতে হবে। 

এরপর গাজর, ক্যাপসিকাম আর পেঁয়াজে অল্প লবণ আর তেল মেখে রাখতে হবে। ম্যারিনেট শেষে মাশরুমে অল্প লবণ মিশিয়ে নিয়ে সাশলিক স্টিকে পছন্দ অনুযায়ী মাশরুম, ক্যাপসিকাম, গাজর আর পেঁয়াজ সাজিয়ে নিয়ে বেকিং ট্রেতে সাজিয়ে ওপরে অল্প তেল বা মাখন ছড়িয়ে দিয়ে ১৮০ ডিগ্রি প্রি-হিটেড ওভেনে ১৫ মিনিট গ্রিল করতে হবে। মাঝে ২ থেকে ৩ বার উল্টেপাল্টে দিতে হবে, যাতে সব দিক সমানভাবে হয়। ওভেন না থাকলে চুলাতেও এই সাশলিক করা যাবে। তাওয়ায় অল্প তেল গরম করে তারপর মাশরুমের স্টিকগুলো সাজিয়ে দিয়ে হালকা রং ধরা পর্যন্ত ভেজে/সেঁকে নিতে হবে। তারপর পছন্দমতো সস দিয়ে গরম অবস্থাতেই পরিবেশন করতে হবে। চাইলে টমেটোর বীজ ফেলে কিউব করে কেটে ক্যাপসিকামের সঙ্গে এই সাশলিকে ব্যবহার করা যেতে পারে।


পুর ভরা মাশরুম
উপকরণ: ভালো মানের বাটন মাশরুম ১০টি, সসেজ ৩টি, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, রসুন কুচি আধা চা-চামচ, নর অথবা ম্যাগি চিকেন কিউব চার ভাগের এক ভাগ, গোলমরিচ গুঁড়া পৌনে চা-চামচ, পারমিজান চিজ প্রয়োজনমতো, জলপাইয়ের তেল প্রয়োজনমতো, পেঁয়াজ পাতা সাজানোর জন্য।


প্রণালি: মাশরুমের স্টেম বা ডাট ফেলে নিয়ে ময়দা মেখে ভালো করে ধুয়ে কিচেন টিস্যু দিয়ে মুছে নিতে হবে। সসেজ কুচি করে কেটে নিতে হবে। তারপর প্যানে আধা চা-চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি হালকা করে ভেজে নিয়ে তাতে একে একে রসুন কুচি, সসেজ, গোলমরিচ গুঁড়া, চিকেন কিউব দিয়ে ৪-৫ মিনিট ভেজে নামিয়ে নিয়ে ২ চা-চামচ পারমিজান চিজ মিশিয়ে নিতে হবে। 

এরপর মিশ্রণ ঠান্ডা হলে মাশরুমের ভেতরে সাবধানে পুর ভরে নিয়ে ওপরে আবারও চিজ ছড়িয়ে দিয়ে বেকিং ট্রেতে পাশাপাশি সাজিয়ে ওপরে অল্প করে জলপাই তেল ছড়িয়ে দিয়ে ১৮০ ডিগ্রিতে প্রি-হিটেড ওভেনে ২০ মিনিট বেক করে নামিয়ে নিয়ে গরম-গরম পরিবেশন করুন। বাসায় ওভেন না থাকলে প্যানে অল্প তেল দিয়ে তার ওপরে মাশরুমগুলো সাজিয়ে দিয়ে খুব কম আঁচে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রান্না করতে হবে। কিছুক্ষণ পরপর ঢাকনা খুলে হালকা করে নেড়ে দিতে হবে। যাতে পুড়ে বা লেগে না যায়। সসেজ ছাড়াও মুরগি, চিংড়ি বা মাশরুমের কিমার পুর দিয়েও এই পুর ভরা মাশরুম বানানো যায়।


মাশরুম পাকোড়া
উপকরণ: ওয়েস্টার মাশরুম ১০টি, কর্নফ্লাওয়ার ৩ টেবিল চামচ, ময়দা ৫ টেবিল চামচ, রসুন কিমা পৌনে চা-চামচ, জিরা গুঁড়া পৌনে চা-চামচ, ডিম ১টি, গোলমরিচ গুঁড়া স্বাদমতো, লবণ স্বাদমতো, তেল ভাজার জন্য।


প্রণালি: মাশরুম বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে অল্প ঠান্ডা পানি দিয়ে ঘন গোলা তৈরি করে নিন। তাতে একটা একটা করে মাশরুম ডুবিয়ে গরম তেলে সোনালি করে ভেজে কিচেন টিস্যুতে তুলে নিন। চিলি সসের সঙ্গে গরম-গরম পরিবেশন করুন। এই পাকোড়া ভেজে রেখে দিলে মাশরুম থেকে পানি বের হয়ে নরম হয়ে যেতে পারে। তাই সব সময় পরিবেশনের আগ মুহূর্তে এটা ভাজতে হবে।


স্পাইসি গার্লিক মাশরুম
উপকরণ: বাটন মাশরুম ১৫টি, রসুন কিমা ১ চা-চামচ, চিলি ফ্লেক্স স্বাদমতো, লেবুর রস ১ চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, পার্সলে পাতা আধা চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, জলপাইয়ের তেল অথবা মাখন দেড় চা-চামচ।


প্রণালি: মাশরুম ছোট হলে ২ টুকরা আর বড় হলে ৪ টুকরা করে কেটে নিতে হবে। তারপর প্যানে তেল বা মাখন গরম করে রসুন কিমাটা দিয়ে ভাজতে হবে। হালকা রং ধরলে মাশরুম দিয়ে ভাজতে হবে ৪-৫ মিনিট। তারপর একে একে বাকি উপকরণ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে মিনিট দু-এক রেখে নামিয়ে নিতে হবে।
স্পাইসি গার্লিক মাশরুম স্যুপ
উপকরণ: বাটন মাশরুম ২০টা (পাতলা করে কেটে নেওয়া), পেঁয়াজ ১টা (ছোট আকারের, মিহি করে কুচি করা), রসুন ১ কোয়া (কুচি), চিকেন স্টক ৪ কাপ, ক্রিম আড়াই টেবিল চামচ, পার্সলে পাতা ১ চা-চামচ (কুচি), গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ বা স্বাদমতো, লবণ স্বাদমতো, মাখন ২ টেবিল চামচ।


প্রণালি: প্যানে মাখন দিয়ে তাতে পেঁয়াজ ও রসুন কুচি দিয়ে হালকা ভেজে নিন। এতে পাতলা করে কেটে রাখা মাশরুম দিয়ে পানি শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত রান্না করতে হবে। তারপর চিকেন স্টক দিয়ে মাঝারি আঁচে ১৫-২০ মিনিট ফুটিয়ে ঠান্ডা করে নিতে হবে। অল্প কিছু মাশরুম তুলে রেখে স্টকসহ বাকি মাশরুম ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। 

তারপর ব্লেন্ড করা মাশরুম আবারও প্যানে ঢেলে দিয়ে স্বাদমতো লবণ, ক্রিম, গোলমরিচ গুঁড়া আর পার্সলে পাতা কুচি মিশিয়ে নামিয়ে নিয়ে পরিবেশন পাত্রে ঢেলে ওপরে তুলে রাখা মাশরুম কুচি আর পার্সলে পাতা দিয়ে সাজিয়ে গরম-গরম পরিবেশন করতে হবে।


মাশরুম মাঞ্চুরিয়ান
উপকরণ: বাটন মাশরুম ২০টা, ডিম ১টা, কর্নফ্লাওয়ার ৫ চা-চামচ, ময়দা আধা কাপ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চামচ, সয়া সস ১ চা-চামচ, চিলি সস ১ চা-চামচ, টমেটো কেচাপ ১ টেবিল চামচ, ক্যাপসিকাম ১ কাপ (কিউব করে কাটা), পেঁয়াজ ১টি (বড় আকারের, ৪ ফালি করে পরতে পরতে খুলে নিতে হবে), কাঁচা মরিচ ১টি, পেঁয়াজ পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ, চিনি পৌনে চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল ভাজা ও রান্নার জন্য।


প্রণালি: মাশরুমগুলোকে দুই টুকরা করে কেটে নিতে হবে। কর্নফ্লাওয়ার, ময়দা, অল্প আদা ও রসুন বাটা, ডিম ও অল্প লবণ দিয়ে ঘন গোলা তৈরি করে মাশরুমগুলো তাতে ডুবিয়ে নিন। গরম ডুবো তেলে সোনালি করে ভেজে কিচেন টিস্যুতে তুলে নিতে হবে। 

তারপর অন্য একটা প্যানে অল্প তেল দিয়ে বাকি আদা ও রসুন বাটা, সয়া সস, চিলি সস, টমেটো কেচাপ ও চিনি দিয়ে কষিয়ে নিন। এতে ২ টেবিল চামচ পানি দিন। ফুটে উঠলে কেটে রাখা ক্যাপসিকাম, পেঁয়াজ আর কাঁচা মরিচ কুচি দিয়ে ২ মিনিট ভেজে নিয়ে ভাজা মাশরুমগুলো দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে পেঁয়াজ পাতা কুচি মিশিয়ে নিন। লবণ দেওয়ার প্রয়োজন হলে লবণ দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে (কেননা সসে লবণ আছে)। এটা শুকনা শুকনা হবে। কিন্তু যদি কেউ গ্রেভি পছন্দ করেন তবে অল্প পানিতে কর্নফ্লাওয়ারগুলো তা মিশিয়ে নিয়ে পছন্দমতো গ্রেভিসহ নামিয়ে নিলেই হবে।
 

Post A Comment: