গত ফেব্রুয়ারিতে গুয়াহাটির এসএ গেমসে সোনা জিতে অঝোরে কেঁদেছিলেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। সেটি ছিল সুখের কান্না। বছর না ঘুরতেই সেই মাবিয়া আক্তার সীমান্তর চোখে এখন দুঃখের কান্না।

গত ফেব্রুয়ারিতে গুয়াহাটির এসএ গেমসে সোনা জিতে অঝোরে কেঁদেছিলেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। সেটি ছিল সুখের কান্না। বছর না ঘুরতেই সেই মাবিয়া আক্তার সীমান্তর চোখে এখন দুঃখের কান্না।


কোথাও খেলার সুযোগ পাচ্ছেন না মাবিয়াসহ আরও অনেকেই। ফেডারেশন তাঁদের সুযোগ দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন মাবিয়া, ‘বর্তমান অ্যাডহক কমিটির রোষানলে পড়েছি আমি। তারা আমাকে কোথাও পাঠাচ্ছে না।’


ফেডারেশনের দীর্ঘদিনের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বাধীন কমিটি ভেঙে গত ৯ জুন গঠন করা হয় অ্যাডহক (অস্থায়ী) কমিটি। তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন দেওয়ার কথা থাকলেও এই কমিটি ছয় মাসেও তা করতে পারেনি। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়ও তারা দল পাঠাচ্ছে না।


এ অবস্থায় নতুন নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত আগের কমিটির পুনর্বহাল চেয়ে পরশু ঢাকায় চিঠি পাঠিয়েছে এশিয়ান ভারোত্তোলন ফেডারেশন (এডব্লুএফ)। সেটা না হওয়া পর্যন্ত আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের ভারোত্তোলকদের খেলতে না দেওয়ার পরোক্ষ হুমকিও দিয়েছে এডব্লুএফ।


এ ব্যাপারে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস বলেছেন, ‘আগের নির্বাচিত কমিটির মেয়াদ অনেক আগেই শেষ (২০১২ সালের নভেম্বর)। তাই নিয়ম মেনেই অ্যাডহক কমিটি করা হয়েছে।’ তবে তিনি অ্যাডহক কমিটির কাজে খুশি নন এবং দ্রুত নির্বাচনের জন্য এই কমিটিকেই আরও কিছুদিন সময় বেঁধে দিতে চান বলে জানিয়েছেন।

Post A Comment: