রাজধানীর সেন্ট্রাল হাসপাতালে একসঙ্গে চার সন্তানের জন্ম দিলেন এক গৃহবধূ। বুধবার সিজারিয়ান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ২০ বছর বয়সী ওই গৃহবধূ একপুত্র ও তিনকন্যা সন্তানের জম্ম দেন। অস্ত্রোপচারের নেতৃত্ব দেন উত্তরার শহীদ মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সংযুক্তা সাহা।



রাজধানীর সেন্ট্রাল হাসপাতালে একসঙ্গে চার সন্তানের জন্ম দিলেন এক গৃহবধূ। বুধবার সিজারিয়ান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ২০ বছর বয়সী ওই গৃহবধূ একপুত্র ও তিনকন্যা সন্তানের জম্ম দেন। অস্ত্রোপচারের নেতৃত্ব দেন উত্তরার শহীদ মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সংযুক্তা সাহা।


অধ্যাপক সংযুক্তা সাহা জানান, বিয়ের তিন বছর পার হলেও নিঃসন্তান ছিলেন ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার নাঙ্গলমোড়া নোয়াপাড়া গ্রামের দুবাই প্রবাসী সাইফুল ইসলাম ও শারমিন আক্তার দম্পতি। তিনি প্রতি সপ্তাহে ফেনীতে রোগী দেখেন বলে সেখানেই নিয়মিত চেকআপ করাতেন শারমিন।


এক পর্যায় গর্ভে সন্তান আসলে আলট্রাসনোগ্রাম করে জানা যায়, শারমিন চারটি সন্তান ধারণ করছেন। তবে গর্ভকালীন শারমিনের কোনো ত্রুটি না থাকলেও সন্তানগুলো উল্টে ছিল। তাই ঝুঁকি এড়াতে ৩৬ সপ্তাহের গর্ভবতী অবস্থায় প্রসূতিকে এক সপ্তাহ পূর্বেই সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। সে মোতাবেক তার সিজার হয় বুধবার রাত ১টার দিকে। তাদের জন্য কোনো আইসিইউ বা লাইফ সাপোর্ট লাগেনি। এখন সবাই সুস্থ রয়েছেন।

Post A Comment: