আর ক’দিন পরই ঈদ। মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় এ উৎসবে অনেকেই গ্রামের বাড়িতে তা পালন করতে চান। অনেকে এ সময়টি দর্শনীয় স্থানেও ভ্রমণ করতে চান। অবশ্য যাত্রাপথের ঝক্কি থাকলেও এ আনন্দকে তা ম্লান করতে পারে না। তবে গন্তব্যস্থলে যেতে ভালো পরিবহন কোনটি হবে সে সম্পর্কে জ্ঞানের অভাবে যাত্রাপথে দুর্গতি কিছুটা হলেও বাড়ে। তাছাড়া কোন গন্তব্যের ভাড়া কত সেটি না জানা থাকলে প্রতারিত হওয়া অস্বাভাবিক নয়। তাই কোন গন্তব্যে কোন পরিবহন ভালো সেটি জানা যেমন প্রয়োজন, তেমনই ভাড়া সম্পর্কেও ধারণা থাকা দরকার।

আর ক’দিন পরই ঈদ। মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় এ উৎসবে অনেকেই গ্রামের বাড়িতে তা পালন করতে চান। অনেকে এ সময়টি দর্শনীয় স্থানেও ভ্রমণ করতে চান। অবশ্য যাত্রাপথের ঝক্কি থাকলেও এ আনন্দকে তা ম্লান করতে পারে না। তবে গন্তব্যস্থলে যেতে ভালো পরিবহন কোনটি হবে সে সম্পর্কে জ্ঞানের অভাবে যাত্রাপথে দুর্গতি কিছুটা হলেও বাড়ে। তাছাড়া কোন গন্তব্যের ভাড়া কত সেটি না জানা থাকলে প্রতারিত হওয়া অস্বাভাবিক নয়। তাই কোন গন্তব্যে কোন পরিবহন ভালো সেটি জানা যেমন প্রয়োজন, তেমনই ভাড়া সম্পর্কেও ধারণা থাকা দরকার।


ঈদে ঘরমুখী মানুষের জন্য আগাম টিকিট বিক্রি ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। এখন শুধু ভালো পরিবহনটিকে বাছাই করে টিকিট কেনার অপেক্ষা। তবে ভাড়া সম্পর্কে ধারণা থাকলে ঠকার আশঙ্কা অনেকটাই কমে যাবে। আর সে কারণেই পরিবর্তনের পাঠকদের জন্য গন্তব্যস্থল অনুযায়ী বাসের নাম এবং ভাড়ার তালিকা তুলে ধরা হলো—ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম। 


হানিফ এন্টারপ্রাইজ, শ্যামলী পরিবহন, ইউনিক পরিবহন, টিআর ট্রাভেলস, সৌদিয়া পরিবহন, এনা ট্রান্সপোর্ট, এস আলম পরিবহন, ইয়ার ৭১ এক্সপ্রেস, তুবা লাইন জনপ্রতি ভাড়া হিসেবে ৪শ’ ৮০ টাকা করে নিয়ে থাকে। অবশ্য এগুলো সবই এসি ছাড়া। এছাড়া আরামদায়ক পরিবহনও রয়েছে। পরিবহন ভেদে এগুলোর ভাড়া বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে।

যেমন,
হানিফ এন্টারপ্রাইজ (ভলভো ইকোনমি ক্লাশ)     ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার টাকা 

হানিফ এন্টারপ্রাইজ (ভলভো বিজনেস ক্লাশ)  ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২৫০                                                                                                                                    টাকা 

শ্যামলী পরিবহন (ইকোনমি ক্লাশ)                      ভাড়া জনপ্রতি ১২০০ টাকা 

টি আর ট্রাভেলস (হুন্দাই ইউনিভার্স)             ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২৫০ টাকা 

তুবা লাইন (ইকোনমি ক্লাশ)                               ভাড়া জনপ্রতি ৮৫০ টাকা 

তুবা লাইন (বিজনেস ক্লাশ)                               ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ৫০ টাকা 

ইয়েলো লাইন (বিজনেস ক্লাশ)                 ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২শ’ ৫০ টাকা 

দেশ ট্রাভেলস  (বিজনেস ক্লাশ)                ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২শ’ ৫০ টাকা

রিল্যাক্স ট্রান্সপোর্ট (হুন্দাই ইউনিভার্স)    ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২শ’ ৫০ টাকা

সেন্টমার্টিন পরিবহন (ইকোনমি ক্লাশ)                    ভাড়া জনপ্রতি ৮শ’ ৫০ টাকা 

সেন্টমার্টিন পরিবহন (বিজনেস ক্লাশ)    ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২শ’ ৫০ টাকা 

সোহাগ পরিবহন (ইকোনমি ক্লাশ)                 ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ৫০ টাকা 

সোহাগ পরিবহন (বিজনেস ক্লাশ)           ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২শ’ ৫০ টাকা 

সৌদিয়া পরিবহন (বিজনেস ক্লাশ)        ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ২শ’ ৫০ টাকা 

ঢাকা থেকে কক্সবাজার
এ রুটে হানিফ এন্টারপ্রাইজ, শ্যামলী পরিবহন, ইউনিক পরিবহন, টিআর ট্রাভেলস, দেশ ট্রাভেলস, সৌদিয়া, এস আলম পরিবহন জনপ্রতি ভাড়া ৮০০ টাকা করে নিয়ে থাকে। এগুলো সবই অবশ্য এসি ছাড়া। তবে আরামদায়ক পরিবহন খুঁজলে একটু বেশি ভাড়া গুনতে হবে। 

যেমন,
হানিফ এন্টারপ্রাইজ (এসি ছাড়া)                     ভাড়া জনপ্রতি ২ হাজার টাকা 

শ্যামলী পরিবহন (বিজনেস ক্লাশ)              ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ৫শ’ টাকা 

সোহাগ পরিবহন(বিজনেস ক্লাশ)     ভাড়া জনপ্রতি ১হাজার ৭শ’ থেকে                                                                                                                                 ২হাজার টাকা

সেন্ট মার্টিন পরিবহন (বিজনেস ক্লাশ) ভাড়া জনপ্রতি ১৪শ’ থেকে ২হাজার                                                                                                                        টাকা 

গ্রীন লাইন পরিবহন (বিজনেস ক্লাশ) ভাড়া জনপ্রতি ২হাজার থেকে ২হাজার                                                                                                                           ৫শ’ টাকা 

ঢাকা থেকে টেকনাফ


হানিফ এন্টারপ্রাইজ   (এসি ছাড়া)              ভাড়া জনপ্রতি ৯শ’ টাকা 

শ্যামলী পরিবহন  (এসি ছাড়া)                          ভাড়া জনপ্রতি ৯শ’ টাকা 

ইউনিক পরিবহন (এসি ছাড়া)                         ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ৬শ’ টাকা 

সেন্ট মার্টিন পরিবহন (ইকোনমি ক্লাশ)      ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ৬শ’ টাকা

গ্রীন লাইন পরিবহন  (ইকোনমি ক্লাশ)           ভাড়া জনপ্রতি ১ হাজার ৭শ’ টাকা

ঢাকা থেকে বান্দরবনঃ

এস আলম পরিবহন, হানিফ পরিবহন, শ্যামলী পরিবহন জনপ্রতি ভাড়া ৬শ’ ২০ টাকা (এসি ছাড়া)।

 এছাড়া আরামদায়ক সেবা দিচ্ছে শ্যামলী পরিবহন (ভাড়া জনপ্রতি ৯শ’ ৫০ টাকা [ইকোনমি ক্লাশ]

সেন্টমার্টিন পরিবহন [ভাড়া জনপ্রতি ৯শ’ ৫০ থেকে ১হাজার ৫শ’ টাকা(বিজনেস ক্লাশ)]

ঢাকা থেকে রাঙামাটি
হানিফ পরিবহন, শ্যামলী পরিবহন, ইউনিক পরিবহন, এস আলম পরিবহন জনপ্রতি ভাড়া ৬২০ টাকা করে নিয়ে থাকে। এগুলোর সবই এসি ছাড়া। 

এ ছাড়া ডলফিন পরিবহন একই সেবা জনপ্রতি ৬০০ টাকা করে দিয়ে থাকে। 

আর আরামদায়ক সেবা পেতে শ্যামলী পরিবহন জনপ্রতি ভাড়া নিচ্ছে ৮০০ টাকা (ইকোনমি ক্লাশ) করে।


ঢাকা থেকে খাগড়াছড়ি
শ্যামলী পরিবহন, সৌদিয়া পরিবহন, ঈগল পরিবহন, এস আলম পরিবহন, শান্তি পরিবহন এবং ইকোনো পরিবহন জনপ্রতি ভাড়া ৫২০ টাকা করে নিয়ে থাকে। এগুলো সবই এসি ছাড়া। 

এ ছাড়া আরামদায়ক সেবা হিসেবে সেন্টমার্টিন পরিবহন ৯০০ টাকা হারে জনপ্রতি ভাড়া নিয়ে থাকে। যা ইকোনমি ক্লাশ।


ঢাকা থেকে কাপ্তাই 

শ্যামলী পরিবহন, সৌদিয়া পরিবহন, ডলফিন পরিবহন এবং এস আলম পরিবহন এই রুটে এসি ছাড়া জনপ্রতি ভাড়া ৫শ’ ৫০ টাকা করে নিচ্ছে।


ঢাকা থেকে নোয়াখালী
এই পথে ভালো পরিবহন সেবা দিচ্ছে হিমাচল, একুশে, মুন লাইন পরিবহন। এগুলোর প্রতিটির জনপ্রতি ভাড়া ৩৫০ টাকা।

এছাড়া ইকোনমি ক্লাশের সেবা হিসেবে মুন লাইন এবং হিমাচল ভাড়া নিচ্ছে জনপ্রতি ৪০০ টাকা করে।


ঢাকা থেকে লক্ষ্মীপুর
গ্রামীণ এবং জোনাকী পরিবহন এ রুটে জনপ্রতি ভাড়া নিচ্ছে ২৫০ টাকা করে। এ ছাড়া ঢাকা এক্সপ্রেস এবং ইকোনো সার্ভিন জনপ্রতি ভাড়া নিচ্ছে ৩৫০ টাকা হারে। এগুলোর সবগুলোই এসি ছাড়া।


ঢাকা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এ পথে তিতাস এবং সোহাগ পরিবহন যাত্রী সেবা দিয়ে থাকে। জনপ্রতি ভাড়া হিসেবে গুনতে হবে ২০০ টাকা করে।


ঢাকা থেকে সিলেট
হানিফ, শ্যামলী, ইউনিক এবং এনা পরিবহন এ পথে জনপ্রতি ভাড়া নিচ্ছে ৪৭০ টাকা করে।

 এ ছাড়া আরামদায়ক সেবার জন্য গ্রীন লাইন জনপ্রতি ৯৫০ থেকে ১২০০ টাকা ভাড়া হিসেবে নিচ্ছে।


ঢাকা থেকে শ্রীমঙ্গল
এ রুটে পরিবহন সেবা দিচ্ছে হানিফ এবং শ্যামলী পরিবহন। এসি ছাড়া এগুলোর জনপ্রতি ভাড়া ৩৮০ টাকা।


ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ
এ পথে সবচেয়ে ভাল পরিবহনের মধ্যে রয়েছে এনা ট্রান্সপোর্ট। এ সেবা পেতে জনপ্রতি গুনতে হবে ২২০ টাকা।


ঢাকা থেকে নেত্রকোনা
হযরত শাহ জালাল (রহ) পরিবহনে যেতে ভাড়া দিতে হবে জনপ্রতি ২৭০ টাকা করে।


ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জ
গোপালগঞ্জ যেতে এসি ছাড়া জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৩৫০ টাকা। সেবা গ্রীন লাইন, গোল্ডেন লাইন, কমফোর্ট লাইন, টুঙ্গীপাড়া এক্সপ্রেস এবং দোলা পরিবহন এসি ছাড়া এ মূল্যে যাত্রী সেবা দিচ্ছে। এ ছাড়া ইকোনমি ক্লাশ হিসেবে টুঙ্গীপাড়া এক্সপ্রেস, দোলা পরিবহন, দিগন্ত এক্সপ্রেস আরামদায়ক সেবা দিচ্ছে এ পথে। তবে এগুলোর জনপ্রতি ভাড়া ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা।


ঢাকা থেকে বরিশাল
নদীপথে চাপ থাকলেও বাসে করে অনেকেই এই পথে যাতায়াত করে থাকেন। বাসে যাতায়াতের জন্য হানিফ, সোনার তরী, সুরভী, ঈগল এবং গোল্ডেন লাইনে যেতে পারেন। এসি ছাড়া এগুলোতে ভাড়া গুনতে হবে ৫০০ টাকা করে। আর ইকোনমি সেবা পেতে শাকুরা পরিবহনে যেতে পারেন। জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৬৫০ টাকা।


ঢাকা থেকে কুয়াকাটা
এ পথে যাতায়াত করতে কুয়াকাটা এক্সপ্রেস, সোনার তরী, শাকুরা এবং সুরভী পরিবহনে জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৫০০ থেকে ৭৫০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা থেকে খুলনা
একে ট্রাভেলস, হানিফ, ঈগল এবং সোহাগ পরিবহন এ পথে জনপ্রতি ৫৫০ টাকা হারে যাতায়াত সুবিধা দিয়ে থাকে। যদিও এগুলোর সবই এসি ছাড়া। আর আরামদায়ক সেবা পেতে একে ট্রাভেলস, হানিফ, ঈগল, সোহাগ এবং গ্রীন লাইনের স্মরণাপন্ন হতে পারেন। এ জন্য জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৩০০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা থেকে ঝিনাইদহ
এসি ছাড়া এ আর ট্রাভেলস, রয়্যাল এক্সপ্রেস, জে আর এবং সোনার তরী পরিবহনে জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৪৫০ টাকা। এ ছাড়া রয়্যাল এক্সপ্রেস এবং জে আর পরিবহনে একটু আরামে যেতে জনপ্রতি ভাড়া হবে ৭ থেকে ৮০০ টাকা।


ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ
এস আই, অভি এবং স্টারলিট পরিবহনে এ পথে যাতায়াত করতে পারবেন। এসি ছাড়া এসব বাসে যেতে খরচ হবে ২৫০ টাকা।


ঢাকা থেকে বগুড়া
এ পথে হানিফ, শ্যামলী, এসআর পরিবহন নিয়মিত যাতায়াত করে থাকে। এসি সেবা ছাড়া জনপ্রতি এগুলোর ভাড়া ৩৫০ টাকা। এ ছাড়া ৫ থেকে ৮০০ টাকার মধ্যেও আরামদায়ক সেবা পাবেন এই পথে।


ঢাকা টু পাবনা
আল হামরা, সরকার, এবং পাবনা এক্সপ্রেসে জনপ্রতি ৩৪০ টাকা ভাড়ায় এ পথে যাতায়াত করতে পারবেন। এ ছাড়া শ্যামলী পরিবহন এসি ছাড়া জনপ্রতি ভাড়া ৪০০ টাকা নিয়ে থাকে। আর আরামদায়ক সেবার জন্য শ্যামলী, সরকার এবং পাবনা এক্সপ্রেস ৫ থেকে ৮০০ টাকা জনপ্রতি ভাড়া নিয়ে থাকে।


ঢাকা থেকে রাজশাহী
এসি ছাড়া হানিফ, শ্যামলী, ন্যাশনাল এবং দেশ পরিবহন জনপ্রতি এ পথে ভাড়া নিচ্ছে ৪৫০ টাকা। এ ছাড়া আরামদায়ক সেবার জন্য ন্যাশনাল, দেশ এবং হানিফ পরিবহন ৭০০ থেকে ১ হাজার টাকা জনপ্রতি ভাড়া নিয়ে থাকে।


ঢাকা থেকে নওগাঁ
এসআর, ডিপজল এবং শ্যামলী পরিবহনে এসি ছাড়া জনপ্রতি ভাড়া হবে ৪০০ টাকা। এ ছাড়া ইকোনমি ক্লাশের সুবিধাও রয়েছে এসব পরিবহনে। জনপ্রতি ভাড়া ৬ থেকে ৭০০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা থেকে কুষ্টিয়া
এসি সুবিধা ছাড়া হানিফ, শ্যামলী, জে আর এবং এস বি পরিবহনে যেতে ভাড়া পড়বে জনপ্রতি ৪৮০ টাকা। এ ছাড়া আরামদায়ক সেবা হিসেবে এসবি সুপার ডিলাক্স ৭০০ থেকে ১ হাজার টাকা নিয়ে থাকে।


ঢাকা থেকে যশোর
ভারতে ভ্রমণে অনেকেই প্রথমে যশোরে যাওয়ার প্রয়োজন হয়ে থাকে। এ পথে এসি সুবিধা ছাড়া জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৪৮০ টাকা। এ ভাড়ায় হানিফ, ঈগল এবং সোহাগ পরিবহনে যেতে পারেন। এছাড়া আরামে যেতে হানিফ, ঈগল, সোহাগ কিংবা গ্রীণ লাইন পরিবহনে যেতে পারেন। এ জন্য ভাড়া পড়বে ১ হাজার থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা থেকে বেনাপোল
ভারতের সীমান্ত পাড়ি দিতে যশোরে না নেমে সরাসরি বেনাপোলেও যেতে পারেন। এ পথে হানিফ, একে ট্রাভেলস, এস আলম, ঈগল এবং সোহাগ পরিবহন নিয়মিত সেবা দিয়ে থাকে। এসি ছাড়া এগুলোতে জনপ্রতি ভাড়া পড়বে ৫ থেকে ৬০০ টাকা পর্যন্ত। এ ছাড়া আরামদায়ক সেবা পেতে সোহাগ কিংবা গ্রীন লাইনে খরচ হবে ১২৫০ টাকা থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা থেকে কলকাতা
ভারতের কলকাতায় সরাসরি যাতায়াত করতে চাইলে উঠে পড়তে পারেন মৈত্রী পরিবহনে। জনপ্রতি এর ভাড়া ১ হাজার ৩৫০ টাকা। এ ছাড়া শ্যামলী, সোহাগ এবং গ্রীন লাইনও এ পথে আরামদায়ক সেবা দিয়ে আসছে। ভাড়া পড়বে জনপ্রতি ১৩ থেকে ১৭০০ টাকা পর্যন্ত। আর এসি ছাড়া যেতে চাইলে সোহাগ পরিবহনে খরচ হবে ৬৭০ টাকা।


ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ
হানিফ, শ্যামলী, দেশ কিংবা ন্যাশনাল… এর যে কোনো পরিবহনে ভাড়া পড়বে ৫০০ থেকে ৫২০ টাকা। এ ছাড়া দেশ ট্রাভেলস আরামদায়ক সেবার জন্য জনপ্রতি ১১০০ টাকা ভাড়া নিয়ে থাকে।


ঢাকা থেকে শিলিগুড়ি
শ্যামলী পরিবহনে বিজনেস ক্লাশে যাতায়াত করতে খরচ হবে ১ হাজার ৫০০ টাকা।


ঢাকা থেকে রংপুর
হানিফ, শ্যামলী, নাবিল, এসআর পরিবহন এ রুটে নিয়মিত যাতায়াত করে থাকে। এসি ছাড়া এসব পরিবহনে ভাড়া জনপ্রতি ৫০০ টাকা। এ ছাড়া আরামদায়ক সেবার জন্য এসআর, আগমনী, হানিফ, নাবিল এবং ডিপজল পরিবহনে ভাড়া গুনতে হবে ৮০০ থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা থেকে গাইবান্ধা
হানিফ, শ্যামলী এবং এস আর পরিবহন এই পথে যাতায়াত করে থাকে। জনপ্রতি ভাড়া ৪৫০ টাকা। এ ছাড়া এসআর ট্রাভেলস এর ইকোনমি ক্লাশের ভাড়া হবে ৬০০ টাকা।


ঢাকা থেকে দিনাজপুর
ঢাকা থেকে দিনাজপুর যেতে হানিফ, শ্যামলী এবং নাবিল পরিবহন মানে ভালো। জনপ্রতি এসব পরিবহন ভাড়া হিসেবে ৬০০ টাকা নিয়ে থাকে। এ ছাড়া আরামদায়ক সেবার জন্য নাবিল পরিবহনে ইকোনমি এবং বিজনেস ক্লাশ রয়েছে। এগুলোতে ভাড়া হবে ১ হাজার থেকে ১৪০০ টাকা পর্যন্ত।


ঢাকা টু কুড়িগ্রাম
শ্যামলী এবং নাবিল পরিবহন রয়েছে এই পথে। ভাড়া জনপ্রতি ৫৫০ থেকে ৮০০ টাকা।


ঢাকা টু লালমনিরহাট
হানিফ, শাহ আলী, নাবিল এবং মানিক পরিবহন তাদের এসি ছাড়া সেবার জন্য জনপ্রতি ৫৫০ টাকা ভাড়া নিয়ে থাকে। এ ছাড়া এস আরসহ সবগুলো পরিবহনই আরামদায়ক পরিবহন রেখেছে। এগুলোতে ভাড়া পড়বে ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা।


ঢাকা থেকে পঞ্চগড়
হানিফ এবং নাবিল পরিবহন নিয়মিত এ পথে যাত্রী সেবা দিয়ে থাকে। এসি ছাড়া খরচ হবে ৬৫০ টাকা। আর আরামদায়ক পরিবহনের জন্য ভাড়া পড়বে জনপ্রতি ১১০০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা পর্যন্ত

Post A Comment: